বিশ্বকাপ ২০২২: ৩৬ বছর পর শেষ ১৬-য় মরক্কো, জায়গা করে নিল গত বারের রানার্স ক্রোয়েশিয়াও    

0
৩৬ বছর পরে শেষ ১৬-য়। ছবি সৌজন্যে NDTV Sports/AFP

মরক্কো ২ (জিয়েচ, নেসিরি) কানাডা ১ (আগুয়ার্ড আত্মঘাতী)

ক্রোয়েশিয়া ০ বেলজিয়াম ০

কাতার: ১৯৮৬-এর পর ২০২২। ৩৬ বছর পর দ্বিতীয় বার বিশ্বকাপে শেষ ১৬-য় গেল মরক্কো। ১৯৮৬-তে এই মরক্কোই প্রথম আফ্রিকান দেশ হিসাবে শেষ ১৬-য় গিয়েছিল। মরক্কোর সঙ্গে গ্রুপ ‘এফ’ থেকে ‘রাউন্ড অফ ১৬’-য় গেল গত বারের রানার্স আপ ক্রোয়েশিয়া। বিশ্ব ফুটবল র‍্যাঙ্কিং-এ দ্বিতীয় স্থানে থাকা বেলজিয়াম গ্রুপ স্টেজেই ছিটকে গেল।

বৃহস্পতিবার আল থুমামা স্টেডিয়ামে আয়োজিত ম্যাচে কানাডাকে ২-১ গোলে হারাল মরক্কো। আর ও দিকে আহমদ বিন আলি স্টেডিয়ামে ক্রোয়েশিয়া বনাম বেলজিয়াম গোলশূন্য অবস্থায় শেষ হয়।

৩ ম্যাচ থেকে ৭ পয়েন্ট পেয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হল মরক্কো। আর ৩টি ম্যাচ থেকে ৫ পয়েন্ট ঝুলিতে ভরে গ্রুপে রানার্স আপ হল ক্রোয়েশিয়া। মাত্র ৩ পয়েন্ট সংগ্রহ করে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিল বেলজিয়াম। ১৯৯৮ সালের পর এই প্রথম গ্রুপ স্তরেই ছিটকে গেল বেলজিয়াম। একই সঙ্গে বিদায় নিল কানাডা। তারা ৩ ম্যাচ থেকে এক পয়েন্টও ঘরে তুলতে পারেনি।

মরক্কো-কানাডা ম্যাচে তৃতীয় গোল আত্মঘাতী

প্রথমার্ধের দু’টো গোলেই শেষ ১৬-য় জায়গা পাকা করে নিল মরক্কো। ওই অর্ধেই আরও একটা গোল হল। কিন্তু সেটা আত্মঘাতী, ফলে দ্বিতীয়ার্ধে নিজেদের নামমাত্র লিড ধরে রাখার ব্যাপারে মরক্কো কিছুটা নার্ভাসই ছিল। তবে বিপদ কিছু ঘটেনি। তুলনায় দুর্বল দল কানাডার বিরুদ্ধে ২-১ গোলে জিতল মরক্কো।

ম্যাচের ৪ মিনিটেই গোল করে এগিয়ে যায় মরক্কো। কানাডার গোলকিপারের গড়িমসিতে গোল পেয়ে যান হাকিম জিয়েচ। এর পর ২৩ মিনিটে আবার গোল। আচরাফ হাকিমির কাছে থেকে লম্বা পাস পেয়ে তা কাজে লাগান ইউসেফ এন নেসিরি।

ম্যাচের ৪০ মিনিটে আত্মঘাতী গোলে মরক্কোর লিডের ব্যবধান কমে যায়। কানাডার স্যাম আদেকুগবের ক্রস থেকে দলকে বিপন্মুক্ত করতে গিয়ে নিজেদের গোলেই বল ঢুকিয়ে দেন নায়েফ আগুয়ার্ড।

দ্বিতীয়ার্ধে মরক্কোর উপর বেশ চাপ সৃষ্টি করে কানাডা। তার ফল তারা প্রায় পেয়েও গিয়েছিল। মরক্কোর কর্নারের কাছে ডিফেন্ডারদের উপর দিয়ে লাফিয়ে হেড করেন হাচিনসন। বল ক্রসবারে লেগে রিবাউন্ড করে। বল পেয়ে যান আলিস্টেয়ার জনস্টন। তিনি মরক্কোর গোল লক্ষ্য করে হেড করেন। কিন্তু রক্ষা পায় কানাডা। তবে ম্যাচ ড্র হলেও আদত ফলে খুব একটা ইতরবিশেষ হত না। তারা শেষ ১৬-য় যেতই, তবে চ্যাম্পিয়ন নয়, রানার্স হয়ে।

ক্রোয়েশিয়া-বেলজিয়াম গোলশূন্য

এ যেন সুযোগ নষ্টের খেলা। ম্যাচ শুরু হওয়ার ১০ সেকেন্ডের মধ্যে ক্রোয়েশিয়ার পেরিসিচের শট কানাডার ক্রসবারের উপর দিয়ে বেরিয়ে যায়। এর পর দু’টি দেশই প্রতিপক্ষের রক্ষণ ভেঙে ঢুকে পড়ে। কিন্তু কাজের কাজটি করতে পারেনি। ৪২ মিনিটে গোল করার সুযোগ পায় বেলজিয়াম। কিন্তু কাজে লাগাতে পারেনি।

দ্বিতীয়ার্ধে একই খেলা চলতে থাকে। ম্যাচের ৫০ মিনিটে ক্রোয়েশিয়ার কোভাচিচের শট বাঁচিয়ে দেন বেলজিয়ামের গোলকিপার কুরতোয়েস। ৪ মিনিট পরেই কুরতোয়েস আবার সেভ করেন। এ বার বাঁচান মদরিচের শট। ৬০ মিনিটে বেলজিয়ামের হয়ে সুযোগ নষ্ট করেন পরিবর্ত খেলোয়াড় রোমেলু লুকাকু। এর পর আরও কিছু সুযোগ নষ্ট করেন লুকাকু। বেলজিয়ামের ভাগ্যের চাকা ঘোরাতে পারলেন না তিনি।

আরও পড়ুন

বিশ্বকাপ ২০২২: শেষ ১৬-য় আর্জেন্তিনা বনাম অস্ট্রেলিয়া, ফ্রান্স বনাম পোল্যান্ড

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন