messi

ক্রোয়েশিয়া-৩     আর্জেন্তিনা-০

ওয়েবডেস্ক: অথবা আর্জেন্তিনার এক নম্বর গোলকিপার রোমেরোর হয়তো সেই গুণাবলি ছিল, যা দিয়ে তিন ডিফেন্ডার দিয়ে রক্ষণভাগ সাজানো যায়। কিন্তু তিনি শেষ মুহূর্তে চোট পাওয়ায় অনভিজ্ঞ কাবালেরোকে নিয়ে খেলতে হচ্ছে। যদিও তা দিয়ে কাভালেরোর ওই জঘন্য ক্লিয়ারেন্সের ব্যাখ্যা হয় না, যা থেকে রেবিচ প্রথম গোলটা করে দিলেন ৫৩ মিনিটে।

সত্যি বলতে, মেসির সঙ্গে সম্পর্ক ভালো থাকার অজুহাতে এখনও প্রথম একাদশে গুরুত্ব পাচ্ছেন আগুয়েরো, ইগুয়াইন, ডি মারিয়া(যদিও আজ খেলেননি)। এদের তিনজনেরই সেরা সময় চলে গেছে। অন্যদিকে পাভন, ডিবালা সুযোগ পাচ্ছেন না। আরেক দুরন্ত স্ট্রাইকার ইকার্ডোকে তো রাশিয়ায় নিয়েই যাওয়া হয়নি তিনি মেসির গোষ্ঠীর মধ্যে পড়েন না বলে। তাছাড়া সবাইকে তো ২৫ জনের দলে নেওয়াও সম্ভব নয়।

কয়েকদিন পরেই লা লিগা শুরু হয়ে যাবে। আবার দুরন্ত মেসিকে আমরা দেখতে পাবো। বছর গড়ানোর আগে মানুষ বিশ্বকাপ ভুলে যাবে। খেলা ছাড়ার আগে মেসি আরও দু-একটা ব্যালন ডি’ওর-ও পাবেন। কিন্তু বার্সেলোনার দুরন্ত দলে খেলতে খেলতে মেসি ভুলে গেছেন মাঝারি মানের আর্জেন্তিনাকে সাফল্য এনে দিতে হলে তাঁকে যে অনেক বেশি উদ্যোগ নিতে হবে ও পরিশ্রম করতে হবে। যা একসময় দিয়েগো মারাদোনা করেছেন। যা বছর পাঁচ-ছয় বছর আগে মেসিও করতেন বার্সায়। এটা শুধু বয়সের ব্যাপার নয়। অ্যাটিচ্যুডের প্রশ্ন। হয়তো হর্হে সাম্পাওলি মেসির কাছ থেকে আরও বেশি কিছু আশা করে দলটা সাজিয়েছিলেন। যদিও তাতে এটা মিথ্যা হয় না যে নিজের ডিফেন্ডারদের তিনি ওভার এস্টিমেট করেছিলেন।

এদিন হয়তো পেরেজ অত্যন্ত সহজ সুযোগ নষ্ট করেছেন। কিন্তু তাতেও কোনো লাভ হত বলে মনে হয় না। কারণ মদ্রিচের মতো দুরন্ত ফুটবলার ৮০ মিনিটে যে গোলটা করলেন, তেমন গোল তিনি সবসময়ই করার ক্ষমতা রাখেন। রাকিতিছের শেষ গোলটা নিয়ে বলার কিছু নেই। কারণ সে সময় পুরো আর্জেন্তিনা দলটাই ক্রোয়েশিয়ার বক্সে ছিল।

বস্তুত, প্রি ওয়ার্ল্ড কাপ থেকেই বোঝা গেছিল, এবারের আর্জেন্তিনা দলটা মোটেই সুবিধার নয়। কিন্তু তবু কেন প্রতিভাবান জুনিয়রদের তুলে আনা হল না, তার উত্তর চাইলে সাম্পাওলি হয়তো মনে মনে মেসির কথাই ভাববেন।

যাই হোক, বিষয় হল, নাইজেরিয়া বনাম আইসল্যান্ড ম্যাচের ফল যাই হোক, আর্জেন্তিনা শেষ ম্যাচে নাইজেরিয়াকে বড়ো ব্যবধানে হারাতে পারলে এখনও তাঁদের শেষ ষোলয় যাওয়ার সুযোগ রয়েছে। ওপর মেসির স্পনসররা আছে, ফিফা প্রেসিডেন্ট ইনফ্যান্তিনোর ওপর তাঁদের প্রভাব নেহাৎ কম নয়। কিন্তু এই দল কি নিজেদের চেষ্টায় সেটুকুও পারবে?

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here