southgatewifefinal

ওয়েবডেস্ক: বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড যে এতটা এগোবে তা হয়তো কেউ কল্পনাও করেনি। যত টুর্নামেন্ট এগিয়েছে হ্যারি কেনের নেতৃত্বে দলের সাফল্য ম্যাচ বাই ম্যাচ লক্ষ করা গেছে। ক্রমাগত জয়ের মুখ দেখতে দেখতে চ্যাম্পিয়নের দাবিদার হয়ে ওঠে গ্যারেথ সাউথগেটের দল। ব্রিটিশরা ফের স্বপ্ন দেখা শুরু করেছিলেন যে ‘ঘরের ছেলে ঘরে ফিরছে’ অর্থাৎ বিশ্বকাপ। ১৯৬৬-র পর আবার। ২৮ বছরের খরা কাটিয়ে সেমিতেও পৌঁছে যায় থ্রি-লায়ন্স। কিন্তু সেখানেই স্বপ্নভঙ্গ। এগিয়ে থেকেও শেষমেশ অতিরিক্ত সময়ের গোলে হারতে হয় প্রথম বার ফাইনালে ওঠা ক্রোয়েশিয়ার কাছে।

দলের খেলোয়াড়রা যে নিঃসন্দেহে ভেঙে পড়বে সেটাই স্বাভাবিক। ম্যাচ শেষে টিভির পর্দায় যা ভালো মতনই দেখা গিয়েছে। অবশ্য দলকে ফাইনালে না নিয়ে যেতে পারলেও, চুপচাপ নিজের কাজ করে গিয়েছেন কোচ সাউথগেট। ফলে ইতিমধ্যেই দেশে তাঁকে নায়কের চোখে দেখছে ব্রিটিশবাসী। কোচ হয়ে দেশকে প্রথম বিশ্বকাপ ফাইনালে না তুলতে পারা যে কোনো কাছের মানুষের কাছেই হতাশা বয়ে আনবে। তবে ম্যাচ শেষে তাঁর এই দুঃখ হয়তো কিছুটা ভুলিয়ে দিলেন স্ত্রী আলিসন। ফাঁকা স্টেডিয়ামে স্ত্রী-র সঙ্গে আলিঙ্গন করতে দেখা গেল গ্যারেথকে। যা ইতিমধ্যেই ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়। ইতিমধ্যেই সেই আলিঙ্গন ‘পিউরেস্ট থিং’-এর তকমা পেয়েছে নেট দুনিয়ায়।

 

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন