griezmannwcfinal

ওয়েবডেস্ক: শুক্রবার উরুগুয়েকে হারিয়ে ১২ বছর পর বিশ্বকাপের শেষ চারে ফ্রান্স। তারা যে বিশ্বকাপের অন্যতম ব্যাল্যান্সড দল তা প্রতি ম্যাচেই বোঝা যাচ্ছে। কেউ না কেউ দলকে সঠিক পথে ঠিক চালিত করছেন। প্রি-কোয়ার্টার নায়ক ছিলেন এমবাপে। কোয়ার্টারে সেই জায়গায় দলের তারকা গ্রিজম্যান। বিশ্বকাপে তিনি যে অন্যতম আকর্ষণ হতে চলেছেন তা টুর্নামেন্ট শুরু হওয়ার আগেই বোঝা গিয়েছিল। শুরুতে তেমন ভাবে না পাওয়া গেলেও দলের ভারসাম্যে তাঁর দক্ষতা প্রতি ম্যাচেই চোখে পড়ছে। প্রতিটি ম্যাচে নজর রাখলেই তা বোঝা যাবে। ফলে ম্যাচ সেরার শিরোপাও উঠল তাঁর মাথায়।

তবে এই সবকে ছাপিয়ে দর্শকদের মনে রীতিমতো জায়গা করে নিলেন তিনি। দ্বিতীয়ার্ধে ৬১ মিনিটে তাঁর গোলেই ম্যাচে ব্যবধান বাড়ায় ফরাসিরা। কিন্তু এই গোল করে তাঁকে কিন্তু সেলিব্রেট করতে দেখা যায়নি। বরং তাঁর সতীর্থরা এসে তাঁকে বাহবা দিতে থাকে। ম্যাচ শেষে এর কারণ জিজ্ঞেস করলে তাঁর বক্তব্য, “আমি গোলটা সেলিব্রেট করিনি কারণ, যখন আমি পেশাদার ফুটবলার হিসাবে খেলা শুরু করেছিলাম তখন আমাকে এক জন উরুগুয়ান সব সময় সমর্থন করতেন। যিনি আমাকে ফুটবলের খারাপ এবং ভালো সম্বন্ধে শিখিয়েছেন। তাঁকে শ্রদ্ধা জানিয়েই আমি গোল সেলিব্রেট করিনি।”

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here