francisfinal

ওয়েবডেস্ক: বিশ্বকাপ ইতিমধ্যেই দৈনন্দিন জীবনের অংশ হয়ে উঠেছে। নিজেদের প্রিয় দলের জন্য আমরা যে কোনো কিছু করতে রাজি। সমর্থকরা দলের হয়ে মাঠে না নামলেও, তারাই কিন্তু দলের প্রধান শক্তি। তা তিনি রাত জেগে টিভির সামনে বসে খেলা দেখা ‘ডাই-হার্ড’ সমর্থক হোন কিংবা মাঠে বসে প্রিয় দলের জার্সি গায়ে সমর্থন। কিন্তু এঁরা ছাড়াও এমন অনেক সমর্থক আছেন যাঁদের সম্পর্কে অনেক সময়েই কিছু বলার ভাষা থাকে না। এঁরা এমনই সমর্থক যাঁদের স্যালুট জানানো ছাড়া বোধহয় আর কিছু করার নেই।

যেমন ২৮ বছর বয়সি ভারতীয় ক্লিফিন ফ্রান্সিস। চলতি বিশ্বকাপে যদি সমর্থকদের জন্য কোনো বিশেষ পুরস্কার থাকত তা হলে দাবি করে বলা যেতে পারত তিনি এই পুরস্কারের অন্যতম প্রধান দাবিদার হতেন। কোচির এই বাসিন্দাটি শুধু সাইকেল চালিয়ে রাশিয়া উড়ে গেছেন বিশ্বকাপের খেলা দেখতে।

এই প্রসঙ্গে একটি সর্বভারতীয় দৈনিককে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, “ছোটোবেলা থেকেই আমি ফুটবলের বড়ো ভক্ত। এবং আমার প্রিয় দল আর্জেন্তিনা। বিশ্বকাপের ম্যাচ দেখা আমার কাছে বড়ো স্বপ্ন। তবে তা খুব ব্যয়বহুল। তাই আমি মাত্র একটি ম্যাচ দেখব ফ্রান্স বনাম ডেনমার্কের। তার পর কিছু সময় রাশিয়ায় কাটিয়ে দেশে ফিরে আসব। কিন্তু আসার আগে একই সঙ্গে আমার লক্ষ্য নিজের সাইকেলে মেসির একটি সই।”

২৩ ফেব্রুয়ারি তিনি কেরল থেকে দুবাই উড়ে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে জাহাজে করে ইরান। এবং ইরান থেকে ৪০০০ কিলোমিটারের বেশি পথ সাইকেলে অতিক্রম করে ৫ জুন তিনি রাশিয়ায় পৌঁছোন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here