france

ওয়েবডেস্ক: রবিবার রাতে বিশ্বজয় করার পরে অনেকের মতো মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পও ফ্রান্স দলকে অভিনন্দন জানিয়েছিলেন। কিন্তু অভিবাসী-বিরোধী হিসেবে পরিচিত ট্রাম্প কি জানতে পেরেছিলেন যে এমন একটা দলকে তিনি অভিনন্দন জানিয়েছেন যার চালিকাশক্তিই ছিল অভিবাসীরা।

রবিবার অনেক ফুটবলভক্তই ক্রোয়েশিয়াকে সমর্থন করেছিলেন। না, তাঁদের মধ্যে ফ্রান্স-বিরোধী কোনো মনোভাব ছিল না। বরং আন্ডারডগের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন তাঁরা। কিন্তু অন্য দিকে অন্য ইতিহাস সৃষ্টি করে যাচ্ছিল ফরাসি দলটি। যে দলের ২৩ জনের মধ্যে ১৯ জনই অভিবাসী বা অভিবাসীদের বংশোদ্ভূত। সারা বিশ্বের সংখ্যালঘুদের জন্য এক অন্য রূপকথা লিখে যাচ্ছিলেন তাঁরা।

২০১৪-এর জনসংখ্যার ভিত্তিতে দেখা যাচ্ছে ফ্রান্সের মোট নাগরিকের ৯.১ শতাংশই অভিবাসী। কেন এত অভিবাসী বেশি ফ্রান্সে। সেটা জানতে গেলে অবশ্য পৌঁছে যেতে হবে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী সময়ে। ফ্রান্সের শ্রমিক চাহিদা মেটানোর জন্য আফ্রিকা, ইউরোপ এবং এশিয়ায় তাদের কলোনিগুলো থেকে অনেক শ্রমিক নিয়ে আসা হয়েছিল। ফ্রান্স আবার এমন একটা দেশ যারা অভিবাসীদের খেলা-মনযোগী করে তোলার জন্য বিশেষ স্কাউট ব্যবস্থা চালু করেছিল। এতেই লাভবান হয়ে যায় অভিবাসী এবং তাদের উত্তরসূরিরা।

এর ফলে কী হল? বিশ্বকাপ ঘরে তুলল একটা ভিন্ন সংস্কৃতির, বৈচিত্রময় দল। একবার দেখে নেব অভিবাসী সেই সব খেলোয়াড়দের পরিচয়।

kylian mbappe final
এমবাপ্পে।

১) কিলিয়ান এমবাপ্পে- প্যারিসের কাছে বুন্ডিতে অভিবাসীদের কলোনিতে বাড়ি এমবাপ্পের। আলজেরীয় মা এবং ক্যামেরুন-জাত বাবার সন্তান এমবাপ্পে।

২) পল পোগবা – ধর্মপ্রাণ মুসলমান পোগবার জন্ম ফ্রান্সের লগ্নি-সুর-মার্নেতে। তাঁরা বাবা-মা গিনি-জাত।

৩) ব্লাইসে মাতুইদি – কঙ্গোজাত মা এবং আঙ্গোলা-জাত বাবার সন্তান।

৪) স্যামুয়েল উমতিতি – ক্যামেরুন-জাত উমতিতি দু’বছর বয়সে ফ্রান্সে চলে আসেন।

৫) এনগোলো কান্তে – ধর্মপ্রাণ মুসলিম কান্তে মালি থেকে ফ্রান্সে চলে আসেন।

৬) আতয়াঁ গ্রিৎসমান- জার্মান বাবা এবং পর্তুগিজ মায়ের সন্তান।

৭) ওউসমানে ডেমবেলে- নর্ম্যান্ডিতে জন্ম ডেমবেলের মা সেনেগাল-জাত ফরাসি। বাবা মালে-জাত।

৮) থমাস লেমার – গুয়াদুলাপেতে জন্ম তাঁর।

৯) স্টিভ মান্ডান্ডা এমপিডি – কঙ্গো-জাত এমপিডি, দু’বছর বয়সে ফ্রান্সে চলে আসেন।

১০) আলফন্সে আয়রোলা- এই খেলোয়াড় ফিলিপিন্সজাত।

১১) প্রেসনেল কিমপেমবে- তাঁর বাবা কঙ্গোর, মা হাইতির।

paul pogba
পোগবা।

১২) জিব্রিল সিদিবে- সেনেগাল-জাত।

১৩) বেঞ্জামিন মেন্ডি- সেনাগাল-জাত।

১৪) নাবিল ফেকির- তাঁর বাবা-মা আলজেরীয়।

১৫) আদিল রামি- বাবা মা মরক্কো-জাত।

১৬) অলিভিয়ার জিরু- তিনি ইতালিয়ান।

১৭) স্টিভ এনজনজি- কোঙ্গোলিজ বাবা এবং ফরাসি মায়ের সন্তান তিনি।

১৮) কোরেন্টিন টোলিসো- এই ফুটবলার টোগো-জাত।

১৯) উগো ইয়োরিস- ফরাসি অধিনায়কও কিন্তু ফ্রান্সের ভূমিপুত্র নন। তিনি স্প্যানিশ।

এর পাশাপাশি অনেকেই হয়তো জানেন যে ফ্রান্সের কিংবদন্তি জিনাদিন জিদানও অভিবাসী। তিনি আলজেরীয়।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here