উরুগুয়ে-২     পর্তুগাল-১

ওয়েবডেস্ক: আইকন ফুটবলারদের নিয়ে স্পনসরদের মাথাব্যথা। ফিফারও। আর ফুটবলপ্রেমীদের তো বটেই। এই বঙ্গদেশেও বিশ্বকাপ শুরু আর রোনাল্ডোর হ্যাটট্রিকের পর থেকে মেসি বনাম সিআর সেভেনের ভক্তদের লড়াই চলছে। যা শেষ করে দিল সুপার স্যাটারডে। দুই বিশ্ব সেরার বিদায় ঘটিয়ে উঠে এলেন বোঁপে এবং কাবানি।

সুয়ারেজ-কাবানি জুটি নিয়ে হইচই চলছিল বিশ্বকাপের আগে থেকেই। আমাদের মতো লা লিগা আর ইপিএল দেখা বাঙালি সুয়ারেজকে চিনত। আর নেইমার পিএসজি-তে যোগ দেওয়ায় কিছুটা ফরাসি লিগ দেখার চেষ্টা করেছিল দিন কয়েক। কিন্তু কাবানির ব্যাপারটা সে ভাবে বুঝতে পারেনি। রাশিয়ায় সেই দায়িত্ব গ্রুপ লিগেই কাঁধে তুলে নিয়েছিলেন ৩১ বছর বয়সি স্ট্রাইকার। কিন্তু তাঁর আরও অনেক কিছু প্রমাণ করার ছিল সিআর সেভেনের মঞ্চে। পাশে বিখ্যাততর সতীর্থ সুয়ারেজকে নিয়ে তিনি গোটা বিশ্বকে দেখিয়ে দিলেন তারকা মানেই বার্সেলোনা আর রিয়াল মাদ্রিদ নয়। যে দু’টি গোল কাবানি এ দিন করলেন, দু’টোই মনে রেখে দেওয়ার মতো। বিশেষত প্রথমটা। যেখানে মাঝমাঠ থেকে সুয়ারেজের সঙ্গে এ-প্রান্তে ও-প্রান্তে স্রেফ তিনটি পাস খেলে গোল করে গেলেন তিনি। তখন ম্যাচের সাত মিনিট।

তার পর পর্তুগাল লড়েছে। কিন্তু তাঁদের দলটা অত্যন্ত সাধারণ। তবু বিপক্ষ দল রোনাল্ডোকে নিয়ে ব্যস্ত থাকার সুযোগে সেটপিস থেকে গোল শোধ করেন পেপে। কিন্তু বেশিক্ষণ সেই অবস্থা রাখতে দেননি কাবানি। দলকে এগিয়ে দিয়ে চোট পেয়ে মাঠ ছেড়ে চলে গেছেন। রোনাল্ডোর দলের বিরুদ্ধে হ্যাটট্রিক করা হয়নি তাঁর। কিন্তু দর্শকদের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন।

আর রোনাল্ডো? ডান দিক বাঁ দিক করে বহু চেষ্টা করেছেন। কিন্তু তাঁর জৌলুস এ দিন কেড়ে নিয়েছিলেন গডিন। উরুগুয়ের এই স্টপার ইতিমধ্যেই বিশ্বকাপের সেরা ডিফেন্ডারের তকমা পেয়ে গেছেন। সেই তকমাকে স্থায়ী করে রাখতে এ দিন রোনাল্ডোকে বেছে নেন গডিন। তাঁকে শুধু নড়তে দেননি তা নয়, তাঁর নেতৃত্বে উরুগুয়ের রক্ষণ প্রায় দুর্ভেদ্য হয়ে থাকল গোটা ম্যাচ।

এ সবের মধ্যেই ম্যাচের শেষবেলায় মাথা গরম করে হলুদ কার্ড দেখলেন ক্রিশ্চিয়ানো। পর পর দু’ম্যাচ হলুদ কার্ড দেখায় পরের আন্তর্জাতিক ম্যাচটি খেলতে পারবেন না তিনি। অর্থাৎ ইউরো চ্যাম্পিয়নরা কোয়ার্টার ফাইনালে উঠলে তাতে তিনি খেলতেন না। কীই বা থাকত সেই ম্যাচের। ভালোই হল। আইকনহীন পর্তুগালকে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে দেখার ঝক্কি নিতে হল না দুনিয়ার রোনাল্ডো ফ্যানদের।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here