বিশ্বকাপ ২০২২: পর্তুগালকে হারিয়ে দক্ষিণ কোরিয়া শেষ ১৬-য়, জিতেও জায়গা হল না উরুগুয়ের  

0
উল্লিসিত দক্ষিণ কোরিয়া। ছবি সৌজন্যে NDTV SPORTS/AFP

দক্ষিণ কোরিয়া ২ (ইয়ং-গওন, হি-চান) পর্তুগাল ১ (হোরতা)  

উরুগুয়ে ২ (আরাসসায়তা) ঘানা ০

কাতার: এ যেন গ্রুপ ই-র খেলার পুনরাবৃত্তি হল। দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে হেরে গিয়ে পর্তুগাল উরুগুয়ের শেষ ১৬-য় যাওয়ার পথে বাধা হয়ে দাঁড়াল। উরুগুয়ে এ দিন জিতেও যেতে পারল না শেষ ১৬-য়। গোল-পার্থক্য নয়, গোল করার সংখ্যায় এগিয়ে থাকার জন্য দক্ষিণ কোরিয়া শেষ ১৬-য় গেল। পর্তুগাল আগেই শেষ ১৬-য় চলে গিয়েছে।

গ্রুপ এইচ-এর খেলায় পর্তুগাল ৩ ম্যাচ থেকে ৬ পয়েন্ট পেয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হল। ৩ ম্যাচ থেকে দক্ষিণ কোরিয়া ও উরুগুয়ে, দুই দলেরই সংগ্রহ ৪ পয়েন্ট। গোল-পার্থক্যের হিসাবেও দু’টি দল একই জায়গায়। কিন্তু প্রতিপক্ষকে গোল দেওয়ার বিচারে দক্ষিণ কোরিয়া এগিয়ে। তারা দিয়েছে ৪ গোল, আর উরুগুয়ে দিয়েছে ২ গোল। আর ৩ ম্যাচ থেকে ৩ পয়েন্ট পেয়ে বিদায় নিল ঘানা।

শুক্রবার এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে আয়োজিত ম্যাচে দক্ষিণ কোরিয়া ২-১ গোলে হারাল পর্তুগালকে। আর আল জানাউব স্টেডিয়ামে আয়োজিত ম্যাচে উরুগুয়ে ২-০ গোলে হারাল ঘানাকে।

এগিয়ে থেকেও হেরে গেল পর্তুগাল

ম্যাচ শুরুর ৫ মিনিটের মধ্যেই গোল করে পর্তুগাল। দিয়োগো দালোত বল নিয়ে অনেকটা ছুটে এসে দক্ষিণ কোরিয়ার বক্সের ঠিক বাইরে পাস দেন রিকার্দো হোরতাকে। হোরতা সেই পাস থেকে গোল করতে কোনো ভুলচুক করেননি।

দক্ষিণ কোরিয়াও আক্রমণে ঝাঁপিয়ে পড়ে। নিজেদের পেনাল্টি বক্সে কোরীয় আক্রমণ প্রতিহত করেন পর্তুগালের গোলকিপার দিয়োগো কোস্তা। ম্যাচের ১৮ মিনিটে পর্তুগালের জোয়াও ক্যানসেলোকে গোল থেকে বঞ্চিত করেন কোরিয়ার গোলকিপার কিম সিয়ুং-গিউ।

২ মিনিট পরেই গোল থেকে বঞ্চিত হয় দক্ষিণ কোরিয়া। চো গুয়ে-সাংয়ের হেড ডাইভ দিয়ে আটকে দেন কোস্তা। কিন্তু ফিরতি বল পর্তুগালের জালে জড়িয়ে দেন কোরিয়ার এক খেলোয়াড়। কিন্তু তা অফসাইড বলে বাতিল হয়।

দুই দলের আক্রমণ-প্রতি আক্রমণ চলতে থাকে। এরই মাঝে ম্যাচের ২৭ মিনিটে সমতা ফেরায় দক্ষিণ কোরিয়া। কর্নার পায় দক্ষিণ কোরিয়া। কর্নার কিক পর্তুগালের গোলের কাছে দাঁড়িয়ে থাকা কিম ইয়ং-গওনের কাছে পৌঁছোয়। গোল করার সেই সুযোগ নষ্ট করেননি গওন।

গোল খেয়ে ফুঁসে ওঠে পর্তুগাল। ৩৪ মিনিটে দালোতের শট ঝাঁপিয়ে পড়ে বাঁচিয়ে দেন কোরিয়ার গোলকিপার। মিনিট ছয়েক দক্ষিণ কোরিয়া গোল করার সুযোগ পায়। সন হিউং-মিন সোজা বল তুলে দেন কোস্তার হাতে। ২ মিনিট পরে দুর্দান্ত গোল বাঁচান দক্ষিণ কোরিয়ার গোলকিপার। ফিরতি বলে হেড করেন ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডো। সেই হেড গোলের ঠিক বাইরে দিয়ে চলে যায়।

দ্বিতীয়ার্ধে দুই দলই সমানে সমানে খেলতে থাকে। দুই দলই গোল করার সুযোগ পায়। কিন্তু প্রতিপক্ষের গোলকিপার তা বাঁচিয়ে দেন। শেষ পর্যন্ত অতিরিক্ত সময়ের প্রথম মিনিটে ম্যাচের জয়সূচক গোলটি করে দক্ষিণ কোরিয়া। পর্তুগালের পেনাল্টি অঞ্চল থেকে পরিবর্ত খেলোয়াড় হোয়াং হি-চান গোল করে দক্ষিণ কোরিয়ার শেষ ১৬-য় যাওয়া বাস্তবায়িত করেন।             

গোল করার পরে আরাসসায়তার উল্লাস। কিন্তু আদতে লাভ কিছু হল না। ছবি সৌজন্যে Twitter/Seleccion Uruguay

প্রথমার্ধেই ২টি গোল উরুগুয়ের

উরুগুয়ে প্রথম থেকেই আক্রমণে ঝাঁপায়। কারণ তারা প্রথম থেকেই জানত, জয় ছাড়া আজ তাদের গত্যন্তর নেই। তার ফলও পেয়ে যায় তারা। তবে তার আগে ঘানা একটি পেনাল্টি মিস করে। ২২ মিনিটে অ্যান্ড্রু আইউয়ুর শট সহজেই ধরে ফেলেন উরুগুয়ের গোলকিপার সার্গিও রুচেট।

এর ৪ মিনিট পরেই গোল পেয়ে যায় উরুগুয়ে। ঘানার গোলকিপারের কাছ থেকে ফিরে আসা একটি বলে মাথা ছুঁইয়ে গোল করেন খিওরখিয়ান দে আরাসসায়তা। ৬ মিনিট পরে আবার গোল আরাসসায়তার। এই গোলে তাঁকে সহায়তা করেন সুয়ারেজ।

ম্যাচের ৪১ মিনিটে গোল করার সুবর্ণ সুযোগ মিস করেন উরুগুয়ের ডারউইন নুনেজ। প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে ৬ মিনিটে আবার গোল করার সুযোগ আসে উরুগুয়ের কাছে। ঘানার ক্রসবারের উপর দিয়ে বল পাঠিয়ে দেন খোসে মারিয়া গিমেনেজ।

প্রথমার্ধে ২-০ গোলে এগিয়ে থাকে উরুগুয়ে। এ বারের বিশ্বকাপে এই প্রথম উরুগুয়ের গোল।

দ্বিতীয়ার্ধ শুরু হওয়ার প্রায় আধ ঘণ্টা পরে আবার গোল করার সুযোগ পায় উরুগুয়ে। ঘানার বাঁ দিকের পোস্টের ঠিক বাইরে দিয়ে চলে যায় ফাকুন্দো পেলিস্ত্রির শট। এর পরেও দুই দলই গোল করার সুযোগ পায়। কিন্তু কাজের কাজ কিছু হয় না। গোলের সংখ্যা অন্তত আরও একটা বাড়াতে পারলে উরুগুয়ে শেষ ১৬-য় চলে যেতে পারত।

আরও পড়ুন

বিশ্বকাপ ২০২২: শেষ ১৬-য় জাপান, ফের অঘটন ঘটিয়ে হারাল স্পেনকে, আটকে গেল জার্মানি

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন