morocco
Arunava Gupta
অরুণাভ গুপ্ত

১৯৮৬ মেক্সিকো বিশ্বকাপে মারাদোনার ‘ঈশ্বরের হাতের’ গোলের সৌজন্যে যেমন স্মরণীয় তেমনই ফুটবলপ্রেমীদের কাছে আরও একটি বিশেষ কারণে মাইলস্টোন হয়ে থেকে গেছে। কারণ, ওই বিশ্বকাপেই ঘটে গিয়েছিল আরও একটি অকল্পনীয় ঘটনা। তৃতীয় বিশ্বের কাছে যা বুক চিতিয়ে হেঁকে-ডেকে বলার মতোই।

অঘটনের হোতা মরক্কো।কারণ, সে বারই তৃতীয় বিশ্বের কোনো একটা দেশ গ্রুপের শীর্ষে। গ্রুপ এফ-এ পর্তুগালের সঙ্গে ম্যাচ পড়েছিল মরক্কোর। পর্তুগালের কোচ এক গাল হেসে মিডিয়ার সামনে মন্তব্য করেছিলেন, “এতে আর সন্দেহের কী আছে, মরক্কো আমাদের কাছে হারবে, এমন কথা শতকরা ৯৯ জন বলছেন”।

morocco1

ম্যাচ শেষে মরক্কো শুধু জিতলই না, ফলাফল ৩-১, তাও আবার ওই গ্রুপের শীর্ষস্থান অধিকার করে। খেলা শেষে মরক্কোর ম্যানেজার জোস ফাবিয়া মন্তব্য করেছিলেন, “এ বার আমাদের বলার পালা। হাতে-কলমে প্রমাণ হল, যাঁরা জয়ের দাবি করেছিলেন, তাঁরা হেরেছেন। আমরা এখন স্বচ্ছন্দে দেশে ফিরে একটা দারুণ পার্টি দিতে পারি। আমাদের বিশ্বকাপ খেতাব জেতা হয়ে গিয়েছে”।

আরও পড়ুন: ফিরে দেখা ফুটবল বিশ্বকাপ: ‘ঈশ্বরের হাত’ বনাম ‘শয়তানের হাত’

২৯ জুন, ১৯৮৬-র ফাইনালে ম্যাচে আর্জেন্টিনা এবং পশ্চিম জার্মানি মুখোমুখি হয়েছিল মেক্সিকোর আজটেক স্টেডিয়ামে। ১,১৪,৬০০ দর্শকের উপস্থিতিতে আর্জেন্টিনার দখলে গিয়েছিল বিশ্বকাপ। কিন্তু তত দিনে হয়তো মরক্কো টিম ঘরে ফিরে বিজয়োৎসবের ঠেলায় ভুলেছিল ফাইনাল দেখতে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here