robertfinal

ওয়েবডেস্ক: দেখতে দেখতে ঘাড়ের কাছে চলে এল বিশ্বকাপ। আমরাও ঢুকে পড়লাম অন্তিম গ্রুপের আলোচনায়। রাশিয়া বিশ্বকাপের গ্রুপ এইচে রয়েছে একসময় ইউরোপ দাপানো পোল্যান্ড। এই নিয়ে অষ্টমবার বিশ্বকাপের মঞ্চে আবির্ভাব হতে চলেছে তাদের। বিশ্বকাপে তেমন সাফল্য না থাকলেও, ১৯৭৪ এবং ১৯৮২ সালে তারা সেমিফাইনালে পৌঁছে ছিল। তার পর থেকে বিশ্ব ফুটবলে সেই জৌলুস কিন্তু অনেকটাই হারিয়ে ফেলেছে পোল্যান্ড। বারো বছর পর ফের বিশ্বকাপের মূলপর্বে আবির্ভাব হতে চলেছে তাদের। এ ছাড়াও, ১৯৭২ সালে অলিম্পিক্সে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল তারা এবং গত ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের কোয়ার্টার ফাইনালেও পৌঁছেছিল।

poland600

কোচ অ্যাডাম নাওয়াল্কা দেশের প্রাক্তন খেলোয়াড়। দলের পক্ষে কোনটা ভালো, মন্দ তিনি ভালোই জানেন। দলের সব খেলোয়াড়ই ইউরোপ পেশাদারি ফুটবল খেলেন। কিন্তু তাদের মধ্যে সব থেকে বেশি নজর যার অপর থাকবে তিনি অধিনায়ক এবং দলের সবচেয়ে দামি খেলোয়াড় রবার্ট লিয়োনডস্কি। যিনি এই মুহূর্তে জার্মান চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখের অন্যতম সেরা সদস্য এবং অবশ্যই ইউরোপের অন্যতম সেরা স্ট্রাইকার। যোগ্যতা অর্জন পর্বে করেছেন ১৬টি গোল। যা সর্বোচ্চ। তাঁরই সঙ্গে রয়েছেন গোলকিপার ওয়োচাক সেজনি। ডিফেন্সের দায়িত্বে রয়েছেন লুকাস পিসজেক, কামিল গ্লিক। মিডফিল্ডের দায়িত্বে রয়েছেন অভিজ্ঞ জাকুব ব্লাসিকোস্কি এবং কামিল গ্রোসিকি। অন্যদিকে আপফ্রন্টে লিয়োনডস্কির সঙ্গে রয়েছেন আর্কাদিয়ুজ মিলিক।

তবে সমস্যা হল, যোগ্যতা অর্জন পর্বে প্রচুর গোল দেওয়ার পাশাপাশি তাঁরা ১৪টি গোলও খেয়েছে। ইউরোপের কোনো গ্রুপের প্রথম বা দ্বিতীয় স্থানাধিকারী দল এত গোল খায়নি। কোচ নাওয়াল্কা যদি ডিফেন্সের রোগ সারিয়ে নিতে পারেন, তাহলে এবার পোল্যান্ডকে নিয়ে স্বপ্ন দেখাই যায়।

বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে তারা মুখোমুখি সেনেগালের।

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপ ২০১৮: তিউনিশিয়া

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন