australiafootball-wc18

ওয়েবডেস্ক: আসন্ন রাশিয়া বিশ্বকাপে গ্রুপ সি-র অন্যতম সেরা দল এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। এই নিয়ে পঞ্চমবার বিশ্বকাপের মঞ্চে আবির্ভাব হতে চলেছে অজিদের। ১৯৭৪ সালে প্রথম বিশ্বকাপে আত্মপ্রকাশ। এরপর ২০০৬ থকে টানা ২০১৪ বিশ্বকাপে দেখা গিয়েছে তাদের। বিশ্বকাপে তেমন সাফল্য না থাকলেও, আসন্ন বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়া যে ছেড়ে কথা বলবে না তা বলাই যায়। কারণ যোগ্যতা অর্জন পর্বে মোট বাইশটি ম্যাচ খেলে বিশ্বকাপে স্থান পেয়েছে অস্ট্রেলিয়া। যা এখনও পর্যন্ত রেকর্ড। তবে বিশ্বকাপের আগে কিছুটা টানাপোড়েন রয়েছে অস্ট্রেলিয়া শিবিরে। দলকে বিশ্বকাপের মূলপর্বে তুলে দায়িত্ব ছেড়েছেন কোচ আঞ্জি পোস্তেকোগলু। তাঁর জায়গায় এসেছেন বিশ্বের অন্যতম নামি কোচ বার্ট ভান মারউইক। যিনি ২০১০ সালে নেদারল্যান্ডসকে বিশ্বকাপের ফাইনালে নিয়ে গিয়েছিলেন।

marwijk-coach

দলের বেশিরভাগ খেলোয়াড়ই ইউরোপে পেশাদারি ফুটবল খেলেন। যাদের দিকে নজর থাকবে তারা হলেন গোলকিপার ম্যাথিউ রায়ান। ডিফেন্ডার ট্রেন্ট সেইন্সবুরি। অন্যদিকে মাঝমাঠ থেকে আক্রমণ তৈরি দায়িত্ব থাকবে দেশের অন্যতম অভিজ্ঞ খেলোয়াড় মাইল জেডিনাক এবং মার্ক মিলিগানের ওপর। এছাড়া আক্রমণ ভাগে রয়েছেন আরন মুই।

তবে স্ট্রাইকার পজিশনে দলের মুখ কিন্তু দেশের হয়ে সর্বোচ্চ গোলদাতা টিম কাহিল। তবে তিনটি বিশ্বকাপ খেলা ৩৯ বছরের কাহিল নিজেই নিজের বিশ্বকাপ খেলার ওপর প্রশ্ন রেখে দিয়েছেন। কারণটা খুব স্পষ্ট নয়।  তাই শেষমেশ দলে থাকবেন কি না তা সময়ই বলবে। তবে তিনি দলে থাকলে গুরুত্বপূর্ণ হয়েই থাকবেন। এছাড়াও রবি ক্রুস এবং ম্যাথিউ লেকির ওপর দায়িত্ব গোলের সুযোগ তৈরি করা।

বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচে তারা মুখোমুখি ফ্রান্সের।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here