chicaritofinal

ওয়েবডেস্ক: আসন্ন বিশ্বকাপে গ্রুপ এফ-এর অন্যতম শক্তিশালী দল মেক্সিকো। উত্তর আমেরিকা এবং মধ্য আমেরিকার হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন তারা। আসন্ন বিশ্বকাপ মিলিয়ে ষোলবার বিশ্বকাপের মঞ্চে আবির্ভাব হতে চলেছে তাদের। বিশ্ব ফুটবলে তাদের হার না মানা মনোভাব রীতিমতো চর্চিত। ১৯৭০ এবং ১৯৮৬ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালও খেলেছে তারা। শুধু তাই নয়, উত্তর এবং মধ্য আমেরিকার প্রথম দেশ হিসাবে ১৯৯৯সালে প্রথমবার কনফেডারেশন কাপ চ্যাম্পিয়ন হয় তারা। এছাড়াও, ২০১২ অলিম্পিকসে সোনার পদকও রয়েছে তাদের ঝুলিতে। শুধু তাই নয়, সাত বার কনফাকাপ গোল্ড গোল্ড কাপ জয়ী তারা। সঙ্গে তিনবার কনফাকাপ চ্যাম্পিয়নশিপও রয়েছে তাদের ইতিহাসে। টানা ৬ বার বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ডে যাওয়ার কৃতিত্ব রয়েছে তাঁদের ঝুলিতে।

mexicowcfinal

জুয়ান কার্লোস ওসরিওর তত্ত্বাবধানে ফের নিজেদের সেরাটা দিতে মরিয়া তারা। বিশ্বকাপে যাদের ওপর নজর থাকবে তারা হলেন ইউরোপে অন্যতম প্রতিষ্ঠিত গোলকিপার গুলেরিমো ওচোয়া। ডিফেন্সের দায়িত্বে থাকবেন হেক্টর মরিনা এবং ডিয়েগো রেয়েস। মাঝমাঠে আক্রমণের দায়িত্বে রয়েছেন অধিনায়ক এবং দেশের হয়ে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলা আন্দ্রেস গুয়ারডাডো। তাঁকে সঙ্গ দেওয়ার জন্য আছেন জিওভানি ডস স্যান্টস। তবে আক্রমণে কিন্তু নজর রাখতেই হবে কারণ, দলের তারকা খেলোয়াড় জেভিয়ার হারনান্ডেজ। যিনি দেশের সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা। তাঁর সঙ্গে রয়েছেন কার্লোস ভেলা এবং রাউল জেমেনিজ।

বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে তারা মুখোমুখি জার্মানির।

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপ ২০১৮: সুইডেন

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here