Argentina vs. Croatia
Arunava Gupta
অরুণাভ গুপ্ত

আইসল্যান্ডের কাছে আটকে পড়াটা কিছুতেই মানতে পারছে না আর্জেন্তিনা, যেন গলায় কাঁটা বিঁধছে খচখচ করে। সে দিক থেকে ক্রোয়েশিয়া আপাদমস্তক ফুরফুরে মেজাজে।নাইজেরিয়া-বধ ক্রোয়েশিয়াকে অগাধ অক্সিজেন জুগিয়েছে। ১৬ দলে বসার রাস্তা প্রায় পরিষ্কার। এ বার সামনে আর্জেন্তিনা। যাই ঘটুক, সামলে নিতে পারবে ক্রোয়েশিয়া। অন্য দিকে হাতে থাকছে আইসল্যান্ড।

পরিসংখ্যানবিদরা বলেছেন, বিশ্বকাপের ময়দানে আর্জেন্তিনা-ক্রোয়েশিয়া শেষবার মুখোমুখো হয়েছিল ১৯৯৮ সালে। সে বার আর্জেন্তিনার পক্ষে ফল গিয়েছিল ১-০। আর এ বার?

এমনিতে পাহাড় সমান চিন্তা আর্জেন্তিনা শিবিরে। তবে ক্রোয়শিয়ার কোচ জ্লাটকো ডালিক লেটার মার্কস পেয়েছেন আর একটা বিষয়ে। যা জয়ের থেকে খুব একটা কমতি নয়। নাইজেরিয়ার সঙ্গে প্রথম ম্যাচে তিনি স্ট্রাইকার নিকোলা কালিনিককে সুযোগ দিলেন না। বলা হল-আপাতত অতিরিক্তদের তালিকায় থাকো। কোচের হয়তো মাথায় ছিল প্রয়োজনে দ্বিতীয়ার্ধে নামাবেন। ব্যস, নিমেষে তেলে-বেগুনে জ্বলে ওঠেনে নিকোলা। এতক্ষণ মানসিক ভাবে প্রস্তুত ছিলেন  নিশ্চিত নামছেন, এমনকী টুকটাক ওয়ার্মআপ করে কল-কবজা সচল রাখছিলেন, তখন কি না ছাঁটা! বলা হচ্ছে, অতিরিক্ত হয়ে টিকে থাকতে হবে?

zlatko dalic
জ্লাটকো ডালিক

নিকোলা সটান বলেছিলেন, ও সব অতিরিক্ত হয়ে থাকা তাঁর পোষাবে না। অবশ্য এর সঙ্গে জুড়লেন- পিঠের ব্যথা তাঁকে মাঝে মধ্যে কাবু করছে। কোচ ডালিক গম্ভীর স্বরে তাঁকে জানান, “এ রকম অজুহাতের নমুনা নিকোলার আগেও রয়েছে। কিন্তু আমি সব সময়ই টিমে ফিট ফুটবলার চাই। আনফিট যতই এলেমদার হোক, কল্কে দিতে রাজি নই আমি। সুতরাং গুড বাই। ঘরের ছেলে ঘরে ফিরে য়াও। ইয়েস আমি এই সিদ্ধান্ত নিলাম”।

ডালিক সে দিন কড়া সিদ্ধান্ত নিতে পিছপা হননি। আর ওই ম্যাচে জয়ও বলে দিয়েছে, তাঁর সিদ্ধান্তই ছিল সঠিক। কোচ একবার রাশ আলগা করলে রক্ষে নেই, শিবির ছারখার। সত্যিই ক্রোয়েশিয়া জবরদস্ত ‘গার্জেন’ পেয়েছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here