teamswcfinal

ওয়েবডেস্ক: দক্ষিণ আমেরিকা মানেই ফুটবল। ব্রাজিল, আর্জেন্তিনার খেলা থাকলে বাঙালিকে আর দেখে কে । আর তা যদি বিশ্বকাপের খেলা হয় তাহলে তো সোনায় সোহাগা। তবে এই দু’দল ছাড়াও, এমন অনেক দল আছে যারা দৃষ্টিনন্দন ফুটবলে বিশ্বকে চমকে দিয়েছে বহুবার। এই মুহূর্তে সেই শিখরে না থাকলেও, সুযোগ পেলে প্রমাণ করতে মরিয়া। যার প্রমাণ গত বিশ্বকাপে কলম্বিয়া দিয়েছিল কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে।

সেই ধারাকে বজায় রাখতে এ বার তৈরি পেরুও। কিন্তু বিশ্বকাপ যোগ্যতা অর্জন পর্বে তাদের সেই আশায় কিছুটা জল ঢেলে দেয়, দেশের সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা পাওলো গুয়েরেরোর ডোপ টেস্টে ফেল হওয়া। গত বছর অক্টোবরে আর্জেন্তিনার বিরুদ্ধে ম্যাচের পর। যার জন্য কোর্ট অব আব্রিট্রেশন অব স্পোর্টস তাঁকে ১২ মাস নির্বাসিত করে। এই ব্যাপারে তিনি ফিফার কাছে আবেদন করেন শাস্তি কমানোর জন্য। কারণ তিনি বলেন ইচ্ছাকৃত তিনি এমনটা করেননি। মেয়াদ উত্তীর্ণ চায়ের মধ্যে যে কোকেনের মতো এমন কিছু থাকতে পারে তা কখনও ভাবেননি। ফলে সেই শাস্তি ফিফা কমিয়ে অর্ধক করলেও, আন্তর্জাতিক অ্যান্টি ডোপিং সংস্থা ফের সেটির জন্য আবেদন করেন কোর্ট অব আব্রিট্রেশন অব স্পোর্টসের কাছে। ফলে সেটিকে বাড়িয়ে ১৪ মাস করা হয়।

guererofinal

তবে শেষমেশ স্বস্তির খবর সুইজারল্যান্ডের একটি কোর্ট আপাতত সেই রায়কে স্থগিতাদেশ দিয়ে বিশ্বকাপে খেলার ছাড়পত্র দিয়েছে পাওলোকে। কারণ হিসাবে বিচারক ক্রিস্টিনা কিস জানিয়েছেন ” ওঁর বয়স এখন ৩৪। প্রথম বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ যেন হাতছাড়া না হয়”।

শুধু তাই নয়, আসন্ন বিশ্বকাপে পেরুর গ্রুপে থাকা ফ্রান্স, অস্ট্রেলিয়া এবং ডেনমার্কের অধিনায়করাও ফিফার কাছে আবেদন করেছিলেন এই নির্বাসন তুলে নিতে।

এই বিষয়ে পাওলো জানিয়েছেন, “এই রায়ে পুরোপুরি আমি খুশি নই। তবে কিছুটা ধন্যবাদ সুইস কোর্টকে”।

ফলে ৩৬ বছর পর পাওলোর নেতৃত্বে বিশ্বকাপ খেলতে তৈরি পেরু।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here