Home খবর কলকাতা ঘূর্ণিঝড় রেমালের কারণে আংশিক বন্ধ কলকাতা মেট্রো পরিষেবা

ঘূর্ণিঝড় রেমালের কারণে আংশিক বন্ধ কলকাতা মেট্রো পরিষেবা

0
কলকাতা মেট্রো

ঘূর্ণিঝড় রেমালের কারণে কলকাতা মেট্রো পরিষেবা আংশিকভাবে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। মেট্রো কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, রবিবার বিকেল সাড়ে ৫টা থেকে টালিগঞ্জ থেকে নিউ গড়িয়া পর্যন্ত মেট্রো চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে দক্ষিণেশ্বর থেকে টালিগঞ্জ বা মহানায়ক উত্তমকুমার মেট্রো স্টেশন পর্যন্ত মেট্রো চলাচল স্বাভাবিক থাকবে।

রবিবার রাতেই ঘূর্ণিঝড় রেমালের বাংলাদেশ এবং সাগরদ্বীপের মাঝামাঝি এলাকায় আছড়ে পড়ার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। এর প্রভাবে দুই ২৪ পরগনায় তীব্র ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে বলে সতর্ক করা হয়েছে। এই সতর্কতার পরপরই মেট্রো কর্তৃপক্ষ আংশিক পরিষেবা বন্ধের ঘোষণা করে। মেট্রো কর্তৃপক্ষের সূত্রে জানা যায়, দক্ষিণ ২৪ পরগনার দিকে সম্ভাব্য বিপদ এড়াতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মেট্রোর এক আধিকারিক বলেন, “আমরা ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাব ও সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি বিবেচনা করে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। টালিগঞ্জ থেকে নিউ গড়িয়া পর্যন্ত মেট্রো পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে যাতে যাত্রীদের সুরক্ষা নিশ্চিত করা যায়। তবে দক্ষিণেশ্বর থেকে টালিগঞ্জ বা মহানায়ক উত্তমকুমার স্টেশন পর্যন্ত মেট্রো চলাচল অব্যাহত থাকবে।”

আরও পড়ুন। কলকাতা থেকে ২২৫ কিমি দূরে ‘রেমাল’, মধ্যরাতে সুন্দরবন অতিক্রম করার কথা

আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, ঘূর্ণিঝড় রেমাল বাংলাদেশের উপকূল এবং সাগরদ্বীপের মাঝে আছড়ে পড়ার সময় ১০০-১২০ কিমি প্রতি ঘন্টা বেগে ঝড়ো হাওয়া বইতে পারে। এর ফলে সমুদ্র উপকূলবর্তী এলাকাগুলোতে বন্যা এবং প্রচুর ক্ষয়ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে।

দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং উত্তর ২৪ পরগনায় ঝড়ো হাওয়ার কারণে বিদ্যুৎ সংযোগ এবং যোগাযোগ ব্যবস্থা বিপর্যস্ত হতে পারে। স্থানীয় প্রশাসন ইতিমধ্যেই সমস্ত সতর্কতা এবং প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। ঘূর্ণিঝড়ের সময় জনগণকে নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

কলকাতা মেট্রো কর্তৃপক্ষ যাত্রীদের অনুরোধ করেছে, প্রয়োজনে বিকল্প যাতায়াত ব্যবস্থা ব্যবহার করতে এবং মেট্রো স্টেশনগুলিতে অহেতুক ভিড় না করতে। মেট্রো পরিষেবা পুনরায় চালু করার সময় এবং পরিস্থিতি সম্পর্কে সময়মতো জানানো হবে বলে তারা আশ্বাস দিয়েছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Exit mobile version