ফের বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি! আর কতদিন দুর্যোগ, জানাল জাতীয় আবহাওয়া দফতর

0

কলকাতা: মঙ্গলবার বেলা গড়াতেই কলকাতা এবং লাগোয়া জেলাগুলিতে নামল বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি। হাওয়া অফিস বলছে, এই বৃষ্টি চলবে কয়েক ঘণ্টা ধরে। সঙ্গে কোথাও কোথাও ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া।

পশ্চিমবঙ্গ-সহ উত্তর এবং পূর্ব ভারতের আরও বেশ কয়েকটি রাজ্যে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দিয়েছে জাতীয় আবহাওয়া দফতর (IMD)। আবহাওয়া অফিস নিজের অফিসিয়াল বিবৃতিতে বলেছে, আজ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির হবে। তবে বুধবারের মধ্যে উত্তর-পশ্চিম ও পূর্ব ভারতে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টিপাত, ঝড় এবং শিলাবৃষ্টির হ্রাস পাবে। এর পর বৃহস্পতিবার থেকে উত্তর পশ্চিম ভারতে বৃষ্টিপাত এবং বজ্রপাতের একটি নতুন স্পেল শুরু হতে পারে।

আইএমডি-র তথ্য অনুসারে, পূর্ব এবং উত্তর-পূর্ব ভারতের পশ্চিমবঙ্গ এবং সিকিমে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টিপাত এবং দমকা বাতাস অব্যাহত থাকবে। বিস্তৃত এলাকা জুড়ে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

পাশাপাশি মুম্বই, থানে, রায়গড়ের মতো জেলাগুলিতে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দিয়েছে আইএমডি। বুধবার পর্যন্ত অরুণাচলপ্রদেশ, অসম এবং মেঘালয়ে বিক্ষিপ্ত ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনার পূর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস। নাগাল্যান্ড, মণিপুর, মিজোরাম এবং ত্রিপুরায় দুর্যোগ থাকতে পারে আজও।

রাজধানী দিল্লিতে খুব হালকা বা গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির সম্ভাবনা-সহ সাধারণভাবে মেঘলা আকাশের পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস। সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা যথাক্রমে ২৬ এবং ১৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি থাকবে বলে আশা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত কয়েক দিন ধরেই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে ঝড়বৃষ্টি হচ্ছে। যার জেরে তাপমাত্রাও কমে গিয়েছে বেশ কয়েক ডিগ্রি। এ দিন কলকাতার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২১.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি কম। সোমবার দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৬.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে আট ডিগ্রি কম।

বিজ্ঞাপন