Homeখবরদেশ৮ প্রাক্তন ভারতীয় নৌ-অফিসারকে মৃত্যুদণ্ড দিল কাতার আদালত, বিদেশ মন্ত্রক ‘সব আইনি...

৮ প্রাক্তন ভারতীয় নৌ-অফিসারকে মৃত্যুদণ্ড দিল কাতার আদালত, বিদেশ মন্ত্রক ‘সব আইনি পথ খুঁজছে’

প্রকাশিত

খবর অনলাইন ডেস্ক: ৮ জন প্রাক্তন ভারতীয় নৌ-অফিসারকে প্রাণদণ্ডের আদেশ দিল কাতারের আদালত। কাতারের ‘কোর্ট অফ ফার্স্ট ইনস্ট্যান্স’ বৃহস্পতিবার এই রায় দিয়েছে। এই রায়কে ‘বেদনাদায়ক’ আখ্যা দিয়ে ভারতের বিদেশ মন্ত্রক বলেছে, ‘বিচারপ্রক্রিয়ার গোপনীয় চরিত্রের’ জন্য তারা এই রায় নিয়ে কোনো মন্তব্য করবে না, তবে সব রকম আইনি পথ খুঁজে দেখা হচ্ছে।

যাঁদের ফাঁসির আদেশ দেওয়া হয়েছে তাঁদের মধ্যে ভারতীয় নৌবাহিনীর পদকপ্রাপ্ত অফিসাররাও আছেন, যাঁরা একসময়ে দেশের প্রধান প্রধান যুদ্ধবিমান পরিচালনা করেছেন। এঁরা ‘দহরা গ্লোবাল টেকনোলজিস অ্যান্ড কনসালট্যান্সি সার্ভিসেস’ নামে এক বেসরকারি সংস্থায় কাজ করতেন। এই সংস্থা কাতার সেনাবাহিনীর সমগোত্রীয় কাজে প্রশিক্ষণ দিত।

সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, এঁদের কেউ কেউ ইতালীয় প্রযুক্তিভিত্তিক গোপন বৈশিষ্ট্যযুক্ত ক্ষুদ্র সাবমেরিনের মতো অত্যন্ত সংবেদনশীল প্রকল্পে কাজ করতেন। রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, এঁদের বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ ছিল। তবে কাতারি কর্তৃপক্ষ তাঁদের বিরুদ্ধে এই অভিযোগের কথা প্রকাশ্যে কখনও জানায়নি।

দণ্ডাজ্ঞাপ্রাপ্ত সকলেই ২০২২-এর আগস্ট থেকে জেলে বন্দি ছিলেন। ভারতীয় দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ রাখার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল তাঁদের। এর ভিত্তিতে কাতারে নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূত ১ অক্টোবর জেলে তাঁদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন। তাঁদের মুক্তির জন্য দিল্লি চেষ্টা চালাচ্ছিল। গত মার্চ থেকে তাঁদের বিচার শুরু হয়।

তাঁদের জামিনের আবেদন বারবার খারিজ করে দেওয়া হয়েছে এবং কাতারি কর্তৃপক্ষ তাঁদের আটক রাখার মেয়াদ বারেবারে বাড়িয়ে গিয়েছে। শেষ পর্যন্ত কাতারের আদালত বৃহস্পতিবার তাঁদের ফাঁসির আদেশ শোনাল।

যাঁদের মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে তাঁরা হলেন ক্যাপ্টেন নবতেজ সিং গিল, ক্যাপ্টেন বীরেন্দ্র কুমার বর্মা, ক্যাপ্টেন সৌরভ বশিষ্ঠ, কমান্ডার অমিত নাগপাল, কমান্ডার পূর্ণেন্দু তিওয়ারি, কমান্ডার সুগুনাকর পকলা, কমান্ডার সঞ্জীব গুপ্তা এবং নাবিক রাগেশ।

বিদেশ মন্ত্রক কী বলল       

এই খবর পাওয়ার পর ভারতের বিদেশ মন্ত্রক এক বিবৃতিতে বলেছে, “মৃত্যুদণ্ডাদেশের খবরে আমরা গভীর ভাবে বেদনাহত হয়েছি এবং পুরো রায়ের অপেক্ষায় রয়েছি। দণ্ডিতদের পরিবার-পরিজন এবং আইনি দলের সঙ্গে আমরা যোগাযোগ রেখে চলেছি এবং সব রকম আইনি পথ খুঁজে দেখছি।”

বিদেশ মন্ত্রকের বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, “এই মামলাটিকে আমরা যথেষ্ট গুরুত্ব দিচ্ছি এবং কড়া নজরদারিতে অনুসরণ করে চলেছি। আমরা সব রকম দূতক্রিয়া এবং আইনি সাহায্য দিয়ে যাব। কাতারি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে আমরা কথা বলব। এই মামলার বিচারপ্রক্রিয়ার গোপনীয়তার জন্য এই মুহূর্তে এই নিয়ে আর কোনো মন্তব্য করা উচিত হবে না।”

দণ্ডিত প্রাক্তন নৌ-অফিসারের বোনের আবেদন   

ভাইকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য এক দণ্ডিত প্রাক্তন নৌ-অফিসারের বোন নিতু ভার্গব সরকারের সাহায্য চেয়েছিলেন। গত ৮ জুন সোশ্যাল মিডিয়া ‘এক্স’ তথা পূর্বতন টুইটারে পোস্ট করে এই বিষয়টিতে হস্তক্ষেপ করার জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে আবেদন জানিয়েছিলেন।

তিনি পোস্টে লিখেছিলেন, “এই প্রাক্তন নৌ-সেনা অফিসাররা দেশের গর্ব এবং আমি আবার আমাদের সশ্রদ্ধেয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে হাতজোড় করে অনুরোধ করছি আর দেরি না করে ওঁদের সকলকে দেশে ফিরিয়ে আনার এটাই উপযুক্ত সময়।” তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ছাড়াও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অমিত শাহ এবং রাজনাথ সিংকেও ওই পোস্টটি ‘ট্যাগ’ করেছিলেন।

সাম্প্রতিকতম

জার্মানি, সুইৎজারল্যান্ডে নেই, ভারতের সেরেল্যাকে অত্যধিক চিনি, তদন্তের নির্দেশ

এ নিয়ে একটি আন্তর্জাতিক রিপোর্ট সামনে আসার সঙ্গে  তৎপর হল কেন্দ্র। ইতিমধ্যে নেসলে কোম্পানির শিশুখাদ্য নিয়ে তদন্ত শুরু করছে  স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের অধীন খাদ্য সুরক্ষা নিয়ন্ত্রক (এফএসএসএআই)।

শহরে অত্যধিক গরমের অনুভূতির কারণ ‘আরবান হিট আইল্যান্ড’

শ্রয়ণ সেন তাপপ্রবাহের কবলে দক্ষিণবঙ্গ। এই অঞ্চলের ১৫টি জেলার মধ্যে দক্ষিণ ২৪ পরগণা এবং পূর্ব...

লোকসভা নির্বাচনের প্রথম দফায় রেকর্ড ভোট পড়ল ত্রিপুরায়, দ্বিতীয় স্থানে বাংলা

কমিশনের তথ্য অনুযায়ী সন্ধে সাতটা পর্যন্ত ভোট পড়েছে, ৭৯.৯০ প্রথম দফায় ৫৮১৪ বুথে ভোটগ্রহণ হয়েছে। ১০০ শতাংশ বুথে এদিন কেন্দ্রীয় বাহিনী ছিল।

ভোট না দিয়ে ফেরত যাবেন না! পরিযায়ী শ্রমিকদের ‘সতর্কবার্তা’ মমতার

মুর্শিদাবাদের জনসভায় তিনি বলেন, 'আমি সমস্ত পরিযায়ী শ্রমিকদের অনুরোধ করতে চাই যারা এখানে ঈদ উদযাপন করতে এসেছেন, দয়া করে ভোট না দিয়ে ফিরে যাবেন না।

আরও পড়ুন

জার্মানি, সুইৎজারল্যান্ডে নেই, ভারতের সেরেল্যাকে অত্যধিক চিনি, তদন্তের নির্দেশ

এ নিয়ে একটি আন্তর্জাতিক রিপোর্ট সামনে আসার সঙ্গে  তৎপর হল কেন্দ্র। ইতিমধ্যে নেসলে কোম্পানির শিশুখাদ্য নিয়ে তদন্ত শুরু করছে  স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের অধীন খাদ্য সুরক্ষা নিয়ন্ত্রক (এফএসএসএআই)।

লোকসভা নির্বাচনের প্রথম দফায় রেকর্ড ভোট পড়ল ত্রিপুরায়, দ্বিতীয় স্থানে বাংলা

কমিশনের তথ্য অনুযায়ী সন্ধে সাতটা পর্যন্ত ভোট পড়েছে, ৭৯.৯০ প্রথম দফায় ৫৮১৪ বুথে ভোটগ্রহণ হয়েছে। ১০০ শতাংশ বুথে এদিন কেন্দ্রীয় বাহিনী ছিল।

প্রথম দফায়  গডকরী, রিজিজু-সহ মোদী সরকারের ৮ মন্ত্রী, বিজেপির ২ প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লড়ছেন ভোটে

লোকসভার পাশাপাশি   অরুণাচল প্রদেশের ৬০ এবং সিকিমের ৩২টি বিধানসভা আসনেও ভোট হবে শুক্রবার।