Homeবিনোদনঅশোক বিশ্বনাথনের চলচ্চিত্র ‘হেমন্তের অপরাহ্ন’-এর পোস্টার উন্মোচন

অশোক বিশ্বনাথনের চলচ্চিত্র ‘হেমন্তের অপরাহ্ন’-এর পোস্টার উন্মোচন

প্রকাশিত

খবর অনলাইন ডেস্ক: বহু দিন পর বড়ো পর্দায় ফিরলেন পুরস্কারবিজয়ী চলচ্চিত্র পরিচালক অশোক বিশ্বনাথন। তৈরি করেছেন ‘হেমন্তের অপরাহ্ন’। বুধবার এই ছবির পোস্টার উন্মোচন হল আইসিসিআর-এ। পোস্টার উন্মোচন করলেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন চলচ্চিত্র গৌতম ঘোষ।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ছবির পরিচালক অশোক বিশ্বনাথন, অন্যতম প্রযোজক অমিত আগরওয়াল এবং ছবির তারকা অভিনেতা-অভিনেত্রীরা। কোভিড অতিমারির সময়ে আমাদের জীবনের উপর দিয়ে যে ঝড় বয়ে গিয়েছে, একই সঙ্গে ইউক্রেন ও পশ্চিম এশিয়ার যুদ্ধ যে ভাবে বিশ্বের পরিবেশে প্রভাব ফেলেছে, তারই গতিশীল এবং নাটকীয় দলিল এই ‘হেমন্তের অপরাহ্ন’।

এই ছবির একটা অন্য দিকও রয়েছে। ছবির অনেকটা অংশই জুড়ে রয়েছে নাটকের মঞ্চ। ছবির পর্দাতেই দেখা যাবে মঞ্চের অভিনয়। আগামী জুনে এই ছবি মুক্তি পাবে।

কী বললেন অশোক বিশ্বনাথন ও অমিত আগরওয়াল

অনুষ্ঠানে ছবির পরিচালক ও অন্যতম প্রযোজক অশোক বিশ্বনাথন বলেন, “এই ছবির শ্যুটিং হয়েছে কলকাতা ও তার আশেপাশের অঞ্চলে। কোভিডের সময়টাকে তুলে ধরা হয়েছে। এই ছবিতে নাট্যমঞ্চের পিছনের জগতের অনুসন্ধান করা হয়েছে। কতটা লড়াইয়ের মধ্যে দিয়ে শিল্পীদের যেতে হয় তা দেখানো হয়েছে এই ছবিতে। ফিল্‌ম ও নাটকের পিছনে যে সব ঘটনা ঘটে চলেছে, তার সঙ্গে জড়িত মানুষজন কী ভাবে খাপ খাওয়ান, সেটাই এই ছবির চিত্রনাট্যের বিষয়বস্তু। উদ্বেগ ও মানসিক ভাবে ভেঙে পড়া যে সাম্প্রতিককালে মানুষকে আত্মহত্যার দিকে ঠেলে দিচ্ছে, সেই বিষয়টিও এই চলচ্চিত্রের অন্যতম মূল থিম।”

এই চলচ্চিত্র তৈরি করার ব্যাপারে বিখ্যাত চলচ্চিত্র প্রযোজক অমিত আগরওয়ালকে পাশে পাওয়ায় খুবই আনন্দ প্রকাশ করেন অশোক বিশ্বনাথন। তিনি বলেন, “বিখ্যাত চলচ্চিত্র প্রযোজক অমিত আগরওয়ালের সঙ্গে একযোগে কাজ করতে পেরে আমি খুব খুশি। অমিতবাবু ভাষা ও প্রজন্ম নির্বিশেষে দর্শকদের জন্য বিভিন্ন ধরনের চলচ্চিত্র এনে বিপুল জনপ্রিয় হয়েছে।”

মিডিয়ার সঙ্গে আলাপচারিতায় অমিত আগরওয়াল বলেন, “যদিও এই চলচ্চিত্রে এক বয়স্ক নিঃসঙ্গ বিপত্নীক মানুষের একাকিত্বের যন্ত্রণা দেখানো হয়েছে, অশোক বিশ্বনাথন খুব আকর্ষণীয় ভাবে লুইগি পিরানদেলোর একটি নাটককে সমান্তরাল প্রেক্ষাপট হিসাবে ব্যবহার করেছেন। এই প্রেক্ষাপটই সেই নিঃসঙ্গ বিপত্নীক মানুষটির জীবনে নতুন দিশা দেখায়। তার ফলে এই অতিমারি, ইউক্রেনের যুদ্ধ পরিস্থিতির মধ্যেও তিনি জীবনকে দেখেন, এক মহিলা সহকর্মী এবং অজানা কাল্পনিক মহিলাদের প্রতি আকর্ষণ বোধ করেন। আমাকে এটা বলতেই হবে যে অশোকদা একটা বিভিন্ন ধরনের উপাদান নিয়ে একটা ভিন্ন ধরনের ফিল্‌ম তৈরি করেছেন। এই ফিল্‌ম শুধু তাঁর চলচ্চিত্রের দর্শকই, সামগ্রিক ভাবে বাংলা চলচ্চিত্র দর্শকের মধ্যে আলোড়ন সৃষ্টি করবে।

চলচ্চিত্রে কুশীলব কারা

এই চলচ্চিত্রে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন অনুষা বিশ্বনাথন, ঋতব্রত মুখোপাধ্যায় এবং সত্যপ্রিয় মুখোপাধ্যায়। পার্শ্ব ভূমিকায় রয়েছেন বিদীপ্তা চক্রবর্তীর মতো অভিনেত্রী। সংগীত পরিচালনা করেছেন গৌরব চট্টোপাধ্যায়, সঙ্গে রয়েছে ‘লক্ষ্মীছাড়া’র গান। সিনেমাটোগ্রাফি করেছেন জয়দীপ ভৌমিক এবং সম্পাদনা করেছেন জাতীয় পুরস্কার বিজয়ী অর্ঘ্যকমল মিত্র। আদর্শ টেলিমিডিয়া এবং এভি প্রডাকসন্স-এর তরফে অমিত আগরওয়াল এবং অশোক বিশ্বনাথন ‘হেমন্তের অপরাহ্ন’ চলচ্চিত্র যৌথ ভাবে প্রযোজনা করেছেন।

আরও পড়ুন

অর্ধেকেরও বেশি রোগের কারণ খাদ্যভ্যাস, আইসিএমআর জানাল প্রতিদিনের পাতে কী থাকা উচিত

সাম্প্রতিকতম

২৪ বছর পর প্রথমবার উত্তর কোরিয়া সফরে পুতিন

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনের যুদ্ধে মস্কোকে ‘দৃঢ়ভাবে সমর্থন’ করার জন্য উত্তর কোরিয়াকে প্রশংসা...

আইসিসি টি২০ বিশ্বকাপ ২০২৪: কোন ৮ দেশ সুপার ৮-এ, দেখে নিন ক্রীড়াসূচি

খবর অনলাইন ডেস্ক: এবারের টি২০ বিশ্বকাপের সুপার ৮-এর খেলা শুরু হচ্ছে বুধবার ১৯ জুন।...

ইউরো কাপ ২০২৪: ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নশিপে রোমানিয়ার পক্ষে সর্বাধিক গোলে জয়  

রোমানিয়া: ৩ (নিকোলে স্টানসিউ, রাজভান মারিন, ডেনিস ড্রাগুস) ইউক্রেন: ০ খবর অনলাইন ডেস্ক: রীতিমতো হইচই...

আরও পড়ুন

চড়কাণ্ডে কঙ্গনাকে ‘উস্কানিমূলক মন্তব্যে’র প্রসঙ্গ মনে করালেন স্বরা ভাস্কর

অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতের উপর হামলার ঘটনার প্রেক্ষিতে মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী স্বরা ভাস্কর। স্বরা স্পষ্ট...

অযোধ্যার ফৈজাবাদে বিজেপির পরাজয়, রামমন্দির প্রসঙ্গ তুলে স্বরা ভাস্করের কটাক্ষ

স্বরা ভাস্করের পোস্টটি মুহূর্তের মধ্যে নেটদুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। অনেকেই তাঁর সঙ্গে সহমত প্রকাশ করেছেন। তবে নেটাগরিকের একাংশ এই পোস্টে স্বরাকে ট্রোল করতেও ছাড়েননি।

রেশন দুর্নীতি মামলায় ইডির তলব এড়ালেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, চাইলেন সময়

এর আগেও ঋতুপর্ণাকে তলব করেছিল ইডি। ২০১৯ সালে অর্থলগ্নি সংস্থা রোজভ্যালির আর্থিক নয়ছয়ের মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাঁকে ডেকে পাঠানো হয়েছিল এবং তিনি হাজিরাও দিয়েছিলেন।