Homeজীবন যেমনসম্পর্কমনের মানুষের উত্তর জানবেন কীভাবে? ভ্যালেন্টাইন্স ডে-তে এই ৭ উপায়ে প্রোপোজ করে...

মনের মানুষের উত্তর জানবেন কীভাবে? ভ্যালেন্টাইন্স ডে-তে এই ৭ উপায়ে প্রোপোজ করে দেখুন

প্রকাশিত

হাতেগোনা মাত্র কয়েকটা দিন বাকী ভ্যালেন্টাইন্স ডে-র। কাউকে কী মনে ধরেছে? বলা হয়ে ওঠেনি এখনও। তাহলে প্রেম দিবসের দিনই গুছিয়ে মনের কথাটা মনের মানুষকে বলে ফেলুন।

ভাবছেন কীভাবে বলবেন? কী উপায়ে বললে  মনের মানুষ আপনার মনের কথায় সাড়া দেবে। বরং আর না ভেবে জেনে নিন কিছু সহজ উপায়।

১। নিজের ব্যক্তিত্ব ধরে রাখুন-

ভালোসার মানুষটিকে চমকে দেওয়ার জন্য অনেক কিছুই করতে ইচ্ছা হতে পারে। তবে এমন কিছু করবেন না যাতে আপনার ব্যক্তিত্ব ক্ষুণ্ণ কিংবা নষ্ট হয়। নিজের ব্যক্তিত্ব বজায় রেখে সঙ্গীর মন বোঝার ও মন জয় করার চেষ্টা করুন।  

২। হাঁটু গেড়ে-

সব মেয়েই মনে মনে আকাঙ্ক্ষা করে থাকে, তার প্রিয় মানুষটি যেন হাঁটু গেড়ে রাজকীয় ভঙ্গিতে তাকে প্রপোজ করে। তবে খেয়াল রাখবেন, বিষয়টি যেন অতি নাটকীয়তা না হয়। তার সামনে গিয়ে এইভাবে বলতে আপনার হয়তো কিছুটা দ্বিধা লাগতে পারে। তবে চেষ্টা করলে তার সামনে হাঁটু গেড়ে বসে হাতটা বাড়িয়ে বলুন ভালোবাসার কথা।

৩। স্পেশাল ডেট –

কোনও রোমান্টিক ডেটের আয়োজন করতেই পারেন, তার সাথে একটি সারপ্রাইজ গিফট। সারপ্রাইজ ক্যান্ডেল লাইট ডিনারের আয়োজন করে প্রপোজ করে ফেললেও কিন্তু মন্দ হয় না।পারলে আগে থেকেই কোনও ভালো জায়গায় দুটি সিট বুক করে রাখুন। সঙ্গে  মিউজিকের ব্যবস্থাও করতে পারেন।

৪। খাবার খাওয়ার সময়-

প্রিয় মানুষটিকে সঙ্গে নিয়ে কোথাও খেতে চলে যান। পছন্দের রেস্তোরাঁয় বসে তার প্রিয় খাবারগুলো অর্ডার করুন। এরপর খাওয়ার এক ফাঁকে তাকে প্রপোজ করতে পারেন। আপনার প্রতি তারও যদি ভালোলাগা বা ভালোবাসা থাকে তাহলে বিষয়টি খুব সহজ হয়ে যাবে। এরপর প্রেমের পথ অনেকটাই হবে মসৃণ।

৫। পছন্দের জায়গা বেছে নিন-

আপনার পছন্দের মানুষটির পছন্দের জায়গা কেমন হতে পারে আগে থেকে সে সম্পর্কে তার থেকে একটা ধরাণা নিন। তেমনই একটি জায়গা নির্বাচন করতে পারেন ঘুরতে যাওয়ার জন্য। পাশাপাশি বসে গল্প করতে পারেন। এরপর এক ফাঁকে টুপ করে জানিয়ে দিন মনের কথাটি। এতে তার উত্তর পাওয়া সহজ হবে।

৬। ফিল্মি ডায়লগ-

জীবন সব সময়ই যে সাধারণভাবে চলবে তা তো নয়। একটু-আধটু ফিল্মি ভাষায় কথা বললে  সমস্যা কিছু নেই। প্রথমে তার জন্য গোলাপ কিনে আনুন। এরপর ফিল্মে দেখা কোনও  নায়ক চরিত্রের মতো অথবা নিজের মতো করে ফুলটি তার দিকে বাড়িয়ে ধরুন। বলতে পারেন কোনও প্রেমের কবিতার লাইনও। এতে তার মন পাওয়া সহজ হবে অনেকটাই।

৭। প্রেম পত্র-

সামনাসামনি মনের কথা বলতে ভয় হয় অনেকেরই। তবে উপায় কিন্তু অনেক আছে মনের কথা বলার। ইন্টারনেটের যুগ হলেও প্রেমপত্রের যুগ কিন্তু এখনও শেষ হয়ে যায়নি। আপনি চাইলেই, আপনার মনের কথা প্রেমপত্রে লিখে জানাতে পারেন। নিজের মনের সব কথা খুলে একটি সুন্দর কার্ডের মধ্যে লিখে ফেলুন। সাথে একটি গোলাপ ও  চকলেটও কিন্তু দিতে পারেন।

ভ্যালেন্টাইন্স ডে-র বিভিন্ন কাহিনী জানতে পড়ুন খবর অনলাইন।

সাম্প্রতিকতম

৯০০ টাকার মধ্যে এই ৮ টি ব্র্যান্ড থেকে নিতে পারেন মেন্স কো-অর্ড সেট

ফ্যাশন এখন শুধু টি-শার্ট, পাঞ্জাবি, শার্ট এবং জ্যাকেটের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেই৷ বর্তমানে ছেলেরা আগের চেয়ে অনেক বেশি ফ্যাশন সচেতন৷ পুরোনো ফ্যাশন স্টেটমেন্ট নতুন ভাবে ফিরে আসছে নতুন কনসেপ্টে৷

১০ দিনের পুলিশি হেফাজতে সন্দেশখালির শাহজাহান

কলকাতা: সন্দেশখালিতে ইডি-র ওপর হামলার ৫৫ দিন পর মিনাখাঁ থেকে গ্রেফতার হয়েছেন তৃণমূল নেতা...

৫৫ দিন পর পুলিশের জালে সন্দেশখালির শাহজাহান

কলকাতা: ৫৫ দিন 'নিখোঁজ' থাকার পর শেষ পর্যন্ত পুলিশের হাতে ধরা পড়লেন সন্দেশখালির তৃণমূল নেতা...

সংকটে কংগ্রেস সরকার, ‘ট্রাবলশুটার’কে হিমাচলে পাঠাল কংগ্রেস

হিমাচলপ্রদেশ রাজ্যসভা নির্বাচনে বিজেপি প্রার্থীর জয়ের পর সংকটে সুখবিন্দর সিং সুখুর কংগ্রেস সরকার। বিরোধী...

আরও পড়ুন

৪০০ টাকার মধ্যে এই ৮ টি ব্র্যান্ড থেকে নিতে পারেন পছন্দের পারফিউম

আধুনিক সময়ে প্রত্যেকেই এখন নিজস্ব স্টাইল ও ব্যক্তিত্বকে সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করার জন্য দিনে দিনে হয়ে উঠেছেন ফ্যাশন সচেতন। ফ্যাশনেবল পোশাক ও জুতোর পাশাপাশি বিভিন্ন রকম মন মাতানো সুগন্ধি বিশেষ করে পারফিউম ব্যবহার আগের তুলনায় এখন বেড়ে দ্বিগুণ হয়ে গেছে।

৬০০ টাকার মধ্যে এই ১০ টি ব্র্যান্ড থেকে নিতে পারেন পছন্দের কো-অর্ড সেট

কো-অর্ড ড্রেস টু-পিস সেট নামেও পরিচিত। এটি এমন একটি পোশাক, যা একই রং এবং প্রিন্টের কাপড় দিয়ে তৈরি। ম্যাচিং আপার ও বটমের সমন্বয়।  কো-অর্ডের সেট একসঙ্গে পরার জন্যই ডিজাইন করা হয়। সবচেয়ে দারুণ বিষয় হল, এর স্টাইল নিয়ে আলাদা করে চিন্তার প্রয়োজন হয় না।

পুজোর আগে কীভাবে চটজলদি ত্বকের এই সমস্যাগুলি থেকে মুক্তি পাবেন? আলুতে হতে পারে সব সমস্যার সমাধান

রূপচর্চাতেও আলুর কদর খুব। আলুর মধ্যে থাকা পটাশিয়াম ত্বকের বয়স কমিয়ে দেয়। এছাড়াও আলুতে থাকে বিভিন্ন ফাইবার, খনিজ, ভিটামিন। যা ত্বকের মধ্যে রক্ত সঞ্চালন ভালো রাখে। সেই সঙ্গে আজীবন ত্বককে রাখে কোমল।