Homeখবরবাংলাদেশ'বয়কট ইন্ডিয়া' জাঁকিয়ে বসছে বাংলাদেশে, শিকড় কোথায়

‘বয়কট ইন্ডিয়া’ জাঁকিয়ে বসছে বাংলাদেশে, শিকড় কোথায়

প্রকাশিত

‘বয়কট ইন্ডিয়া’। কয়েক মাস ধরেই এই ডাক তুলেছে বাংলাদেশের একটি মহল। চতুর্থ বারের জন্য শেখ হাসিনা বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে পড়ে এই আন্দোলন। ঠিক কী কারণে ‘বয়কট ইন্ডিয়া’য় সরব বাংলাদেশের একাংশ।

চলতি বছরের শুরুতেই ছিল বাংলাদেশের সাধারণ নির্বাচন। সেই নির্বাচন বয়কট করে বিরোধী দল বিএনপি। তার পর থেকেই বিভিন্ন ভারতীয় পণ্য বর্জনের ডাক আরও জোরালো হয় বাংলাদেশে। জানা যায়, কিছু সমাজকর্মী এবং প্রভাবশালীদের শুরু করা এই আন্দোলনে বিরোধী রাজনীতিকদের একাংশেরও সমর্থন রয়েছে। এ ছাড়া আমেরিকা এবং বিদেশে থাকা বিভিন্ন বাংলাদেশিরা এই আন্দোলনের পিছনে মদত দিচ্ছেন বলে অভিযোগ।

এখন তো বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে ‘বয়কট ইন্ডিয়া’-র ব্যাপক প্রভাব। ফেসবুক, এক্স (আগের টুইটার)-এর মতো সোশ্যাল মিডিয়ায় বাংলাদেশি নাগরিকদের একটা অংশের উৎসাহের বড়ো কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে এই ‘বয়কট ইন্ডিয়া’। এই প্রচারের সঙ্গে যুক্তরা দাবি করেন যে ভারত শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় থাকার জন্য সমর্থন করছে। কারণ এর নেপথ্যে রয়েছে ভারতের বাণিজ্যিক স্বার্থ।

বিরোধী দল বিএনপি-র বেশ কিছু নেতা ‘বয়কট ইন্ডিয়া’ আন্দোলনকে প্রকাশ্যে সমর্থন জানিয়েছেন। যদিও দলের তরফে এ বিষয়ে এখনও অবস্থান স্পষ্ট করা হয়নি। বিএনপির মিডিয়া সেলের সদস্য শায়রুল কবির খান সংবাদ মাধ্যমের কাছে জানান, দলের মধ্যে এ বিষয়ে আলোচনা চলছে। কিছু নেতা এ বিষয়ে দলের অবস্থান স্পষ্ট করার দাবি জানিয়েছেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত, দলের তরফে এই বিষয়ে কোনো আনুষ্ঠানিক অবস্থান নেই। তবে এটাও সত্যি যে এটা নিয়ে সাধারণ মানুষের প্রবল উৎসাহ দেখাচ্ছেন এবং বিএনপি-র কিছু নেতা এটাকে সমর্থন করছেন।

ওয়াকিবহাল মহলের মতে, এই আন্দোলনের সঙ্গে ভারত-বিরোধী মনোভাব ছড়িয়ে দেওয়ার সম্পর্ক রয়েছে। ভারতে বিশ্বকাপ চলার সময় ও শেখ হাসিনা ফের প্রধানমন্ত্রী পদে বসার পর সেদেশের বিএনপি-সহ বিরোধী নেতারা বাংলাদেশে ভারত বিরোধী মনোভাব ছড়িয়ে দিতে চাইছিলেন। ভারতের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রাখা শেখ হাসিনাকে আক্রমণ করে বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের সহানুভূতি কুড়োতে চাইছিলেন। আর তাতেই জড়িয়ে পড়েন ‘অ-রাজনৈতিক’ মনোভাবাপন্নরা। আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশের মানুষের কাছে ভারতীয় পণ্য বয়কট করার আবেদন জানান। যা বর্তমানে ব্যাপক আকার ধারণ করেছে।

অনেকের মতে, বয়কট ইন্ডিয়া, ভারতীয় পণ্য বর্জনের রাজনীতি নতুন কিছু না। ভারতীয় পণ্য বর্জনের প্রচারণাকে পাকিস্তান আমলে বস্তাপচা নোংরা রাজনীতির সঙ্গে তুলনাও করছেন অনেকে। সেই বস্তাপচা রাজনীতিই আবার নতুন করে আমদানি করা হচ্ছে মাত্র।

আরও পড়ুন: ভোটের জন্য এগিয়ে এল গরমের ছুটি, কত দিন বন্ধ থাকবে স্কুল

সাম্প্রতিকতম

কলকাতার মহাজাতি সদনের সামনে মিনিবাসে আগুন, নামিয়ে দেওয়া হল যাত্রীদের

কলকাতার মহাজাতি সদনের সামনে বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা নাগাদ বিরাটি-বিবাদী বাগ রুটের একটি মিনিবাসে হঠাৎ...

আপনার জীবনে টক্সিক বা বিষাক্ত মানুষের সংস্পর্শ এড়িয়ে চলুন, কীভাবে চিনবেন তাদের

জীবনে চলার পথে এমন অনেক মানুষের সংস্পর্শে আমাদের আসতে হয় যাদের দেখলেই মনে হয়...

চিকিৎসকদের চেয়েও ভালো ভাবে প্রস্টেট ক্যানসার চিহ্নিত করল এআই প্রযুক্তি

দিন কে দিন প্রযুক্তির জগতে উন্নতি হচ্ছে। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তি বা এআই প্রযুক্তি এখন...

মহানায়ক উত্তমকুমারের ৪৪তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

খবর অনলাইন ডেস্ক: বুধবার পালিত হল মহানায়ক উত্তমকুমারের ৪৪তম মৃত্যুবার্ষিকী। আজ থেকে ঠিক ৪৪...

আরও পড়ুন

বাংলাদেশের কেউ পশ্চিমবঙ্গের দরজায় এলে তাকে ফেরানো হবে না, জানিয়ে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়  

খবর অনলাইন ডেস্ক: বাংলাদেশ থেকে কোনো অসহায় মানুষ পশ্চিমবঙ্গের দরজায় এলে তাকে ফেরানো হবে...

কোটা নিয়ে হাইকোর্টের রায় বাতিল, সংরক্ষণ ৭ শতাংশে বেঁধে দিল বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট

বাংলাদেশের সুপ্রিম কোর্ট সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের নির্দেশ দিয়েছে। নতুন রায় অনুযায়ী, সরকারি চাকরির ক্ষেত্রে ৭% আসন সংরক্ষিত থাকবে, বাকি ৯৩% মেধার ভিত্তিতে পূরণ করা হবে।

কারফিউতেও জারি মৃত্যু, ঢাকায় অন্তত ৭ জন নিহত

ঢাকা, বাংলাদেশ: কারফিউ সত্ত্বেও ঢাকায় হিংসার ঘটনা ঘটেছে, যার ফলে অন্তত ৭ জন নিহত হয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে শহরের বিভিন্ন স্থানে উত্তেজনা বিরাজ করছে এবং নিরাপত্তা বাহিনী কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করছে।
ইন্টারভিউয়ে কীরকম শরীরী ভঙ্গিমা থাকা উচিত বাড়তি মেদ ঝরানোর নয়া ট্রেন্ড ‘ওয়াটার ফাস্টিং’ কী?