Homeখবরদেশআবারও কি বিধিনিষেধ ফিরবে? কোভিড, এইচ৩এন২ সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় জোর জল্পনা

আবারও কি বিধিনিষেধ ফিরবে? কোভিড, এইচ৩এন২ সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় জোর জল্পনা

প্রকাশিত

নয়াদিল্লি: নতুন করে বাড়তে থাকা কোভিড-১৯ (COVID-19) এবং এইচ৩এন২ ইনফ্লুয়েঞ্জা (H3N2 influenza) সংক্রমণের দিকে তাকিয়ে একের পর এক পদক্ষেপ নিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। আচমকা উদ্ভূত পরিস্থিতির পর্যালোচনা করার জন্য সোমবার একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে বসার কথা রয়েছে। এরই মধ্যে জল্পনা, জনবহুল জায়গায় সাধারণকে মাস্ক পরতে এবং ভাইরাসের বিস্তার রোধ করতে পর্যাপ্ত স্বাস্থ্যবিধি বজায় রাখার পরামর্শ দিতে পারে কেন্দ্র।

সারা দেশে নতুন করে ৯১৮ জনের করোনোভাইরাস সংক্রমিত হওয়া ঘটনা এবং চারজন মৃত্যুর খবর প্রকাশ্যে আসার পরই এই বৈঠক। সোমবার আপডেট হওয়া কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তথ্য অনুসারে নতুন করে সংক্রমণ বৃদ্ধির পরে, সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৬ হাজার ৩৫০-এ পৌঁছেছে। সংক্রমণের দৈনিক পজিটিভিটি রেট ২.০৮ শতাংশ এবং সাপ্তাহিক পজিটিভিটি রেট ০.৮৬ শতাংশে দাঁড়িয়েছে।

গত কয়েক মাস ধরে ভারতে কোভিড -১৯ সংক্রমণের সংখ্যা উল্লেখযোগ্য ভাবে হ্রাস পেয়েছে। তবে, গত কয়েক সপ্তাহে দেশের কিছু অংশে সংক্রমণের বৃদ্ধি বিশেষভাবে লক্ষ্য করা যাচ্ছে। যেখানে গত ৮ মার্চ শেষ হওয়া সপ্তাহে মোট ২,০৮২ জনের সংক্রমিত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছিল।

ইতিমধ্যে প্রাপ্তবয়স্ক কোভিড রোগীদের জন্য চিকিৎসার নির্দেশিকা সংশোধন করেছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের অধীনস্থ কোভিড -১৯ জাতীয় টাস্ক ফোর্স। রবিবার প্রকাশিত সংশোধিত নির্দেশিকা অনুসারে, এ ক্ষেত্রে লোপিনাভির-রিটোনাভির, হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন (এইচসিকিউ), আইভারমেকটিন, মলনুপিরাভির, ফ্যাভিপিরাভির, অ্যাজিথ্রোমাইসিন এবং ডক্সিসাইক্লিনের মতো ওষুধ ব্যবহারের পরামর্শ দেওয়া হয় না।

এ ছাড়াও সংশোধিত নির্দেশিকা অনুসারে, প্রত্যেককে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা, ঘরের ভিতরে মাস্ক ব্যবহার, হাত ধোয়া চালিয়ে যেতে হবে।  হাইড্রেশন, অ্যান্টি-পাইরেটিকস, অ্যান্টিটিউসিভের মতো ব্যবস্থা এবং তাপমাত্রা এবং অক্সিজেন স্যাচুরেশন পর্যবেক্ষণ করার পরামর্শ দেওয়াও হয়েছে। তেমন হলে চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করা কথা বলা হয়েছে নির্দেশিকায়।

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে, মহারাষ্ট্র, গুজরাত, তেলঙ্গানা, তামিলনাড়ু, কেরল এবং কর্নাটকের রাজ্য সরকারগুলিকে নমুনা পরীক্ষা, চিহ্নিতকরণ, চিকিৎসা এবং টিকাকরণের হার পাঁচগুণ কৌশল অনুসরণ করতে বলেছিল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক। কারণ এই রাজ্যগুলিতে নতুন কোভিড সংক্রমণ ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী।

আরও পড়ুন: কোনো অ্যান্টিবায়োটিক নয়, যদি না…, কোভিড চিকিৎসার নির্দেশিকা সংশোধন কেন্দ্রের

সাম্প্রতিকতম

হাইকোর্টে নিয়োগ দুর্নীতি মামলার রায়, কে কী বললেন?

সোমবার নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় রায় প্রকাশের পর মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দেন, তিনি চাকরিহারাদের পাশে আছেন। আদালের এই রায়ের নেপথ্যে তিনি বিজেপির হাত দেখছেন।

২০১৬-র নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিল, হাইকোর্টের নির্দেশে চাকরি গেল প্রায় ২৬ হাজারের

কলকাতা: রাজ্য সরকার পোষিত ও সাহায্যপ্রাপ্ত স্কুলগুলিতে ২০১৬ সালে রাজ্যস্তরের পরীক্ষার মাধ্যমে নিয়োগ করা...

তাপপ্রবাহের শেষে কালবৈশাখী, কিন্তু কলকাতা, হাওড়া, দক্ষিণ ২৪ পরগণা আদৌ বৃষ্টি পাবে তো?

শ্রয়ণ সেন পূর্ব ভারতের ইতিহাস বিশেষ করে পশ্চিমবঙ্গের ইতিহাস বলে টানা কুড়ি দিন কখনো তাপপ্রবাহ...

২০২২ সালে আমেরিকার নাগরিকত্ব পেলেন ৬৬ হাজারেরও বেশি ভারতীয়, বিশ্বের মধ্যে দ্বিতীয়

মার্কিন জনগণনা ব্যুরোর আমেরিকান কমিউনিটি সার্ভের তথ্য অনুযায়ী, ২০২২ সালে আনুমানিক ৪ কোটি ৬০ লক্ষ বিদেশী বংশোদ্ভূত ব্যক্তি সে দেশে বসবাস করেছেন, যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মোট ৩৩ কোটি ৩০ লক্ষ জনসংখ্যার প্রায় ১৫ শতাংশ।

আরও পড়ুন

টাকা নিয়ে যোগশিক্ষা, দেননি পরিষেবা কর, অবিলম্বে মিটিয়ে দিতে রামদেবের সংস্থাকে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

সময়টা ভাল যাচ্ছে না যোগগুরুর। আগে বিভ্রান্তি কর বিজ্ঞাপন দেওয়া জন্য সুপ্রিম কোর্টের রোষে...

দূরদর্শনের লোগো হল গেরুয়া, প্রতিবাদ মমতার, ভোটের সময় কেন? কমিশনের হস্তক্ষেপ দাবি

শনিবার সমাজ মাধ্যমে মমতা লিখেছেন, 'নির্বাচনের সময় হঠাৎ লোগোর গেরুয়াকরণে আমি স্তম্ভিত।

জার্মানি, সুইৎজারল্যান্ডে নেই, ভারতের সেরেল্যাকে অত্যধিক চিনি, তদন্তের নির্দেশ

এ নিয়ে একটি আন্তর্জাতিক রিপোর্ট সামনে আসার সঙ্গে  তৎপর হল কেন্দ্র। ইতিমধ্যে নেসলে কোম্পানির শিশুখাদ্য নিয়ে তদন্ত শুরু করছে  স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের অধীন খাদ্য সুরক্ষা নিয়ন্ত্রক (এফএসএসএআই)।