Homeখবররাজ্যপড়ে গিয়ে গুরুতর জখম মুখ্যমন্ত্রী, এসএসকেএম-এ চিকিৎসার পর বাড়িতে নিয়ে গেলেন অভিষেক

পড়ে গিয়ে গুরুতর জখম মুখ্যমন্ত্রী, এসএসকেএম-এ চিকিৎসার পর বাড়িতে নিয়ে গেলেন অভিষেক

প্রকাশিত

খবর অনলাইন ডেস্ক: কালীঘাটের বাড়িতে পড়ে গিয়ে গুরুতর জখম হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁকে এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাঁর চিকিৎসার পর তাঁর ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁকে বাড়িতে নিয়ে আসেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা তাঁর দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন।  

তৃণমূল কংগ্রেস সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কালীঘাটের বাড়ির চত্বরে হাঁটার সময়ে কোনো ভাবে পড়ে যান মুখ্যমন্ত্রী। সামনের দিকে ঝুঁকে পড়ায় নাকে ও কপালে গুরুতর চোট পান। কপাল থেকে গলগল করে রক্ত বেরোতে থাকে। মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপো তথা দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের গাড়িতে মুখ্যমন্ত্রীকে হাসপাতালে নিয়ে যান।

হাসপাতাল সূত্রে খবর, মুখ্যমন্ত্রীকে সঙ্গে সঙ্গে উডবার্ন ওয়ার্ডের সাড়ে ১২ নম্বর কেবিনে ভর্তি করানো হয়। এর পরই তাঁকে হাসপাতালের কেবিন থেকে হুইলচেয়ারে নিয়ে যাওয়া হয় এসএসকেএম লাগোয়া বাঙুর ইনস্টিটিউট অফ নিউরোসায়েন্সেসের ওপিডি বিল্ডিংয়ে। সেখানে সিটি স্ক্যান-সহ একাধিক পরীক্ষা করা হয় তাঁর।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, চিকিৎসকেরা মুখ্যমন্ত্রীকে রাতে হাসপাতালেই থেকে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন। কিন্তু তিনি থাকতে চাননি। হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময়ে অভিষেক বলেন, ‘‘মুখ্যমন্ত্রীর মাথায় চারটি সেলাই পড়েছে। এখন তিনি ভাল আছেন। বাংলার মানুষের আশীর্বাদে তিনি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন।’’ পরে হাসপাতালের চিকিৎসক জানান, মুখ্যমন্ত্রীর কপালে তিনটি এবং নাকে একটি সেলাই পড়েছে।

মমতাকে দেখতে হাসপাতালে ছুটে গিয়েছিলেন চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিম, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়, অভিষেকের মা লতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রমুখ। মমতার জখম হওয়ার খবর পেয়ে এসএসকেএমে গিয়েছিলেন রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোসও। তবে তাঁর পৌঁছোনোর কিছু আগেই হাসপাতাল থেকে বাড়ির পথে রওনা হয়ে যান মমতা।

দ্রুত সুস্থতা কামনা প্রধানমন্ত্রী-সহ রাজনৈতিক নেতাদের

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের গুরুতর জখম হওয়ার খবরে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী-সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ‘এক্স’ হ্যান্ডেলে লিখেছেন, ‘‘মমতা দিদির দ্রুত আরোগ্য এবং সুস্থতার জন্য প্রার্থনা করি।’’

বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এক্স হ্যান্ডেলে মুখ্যমন্ত্রীর ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘‘মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দ্রুত আরোগ্য কামনা করি। দ্রুত সুস্থ হওয়ার জন্য আমরা প্রার্থনা করছি।’’

মুখ্যমন্ত্রীর দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন লোকসভায় কংগ্রেসের নেতা তথা বহরমপুরের সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরী। ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, “বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর দ্রুত সুস্থতা কামনা করি।”

সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক মহম্মদ সেলিমও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন। তিনি বলেন, ‘‘ঘটনাটা খুবই দুঃখজনক। আমি চাই উনি দ্রুত সুস্থ হয়ে প্রচারে ফিরুন।’’

আরও পড়ুন

নতুন মুখে ভরসা, বামেদের প্রথম দফার প্রার্থীতালিকা প্রকাশ

সাম্প্রতিকতম

বর্ষাকে ভারতীয় ভূখণ্ডে নিয়ে আসার জন্য চলতি গরম খুব গুরুত্বপূর্ণ, সোমবার থেকে ফের ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা

শ্রয়ণ সেন বর্ষার দামামা বেজে গিয়েছে। দক্ষিণ আন্দামান সাগরে ১৯ মে, রবিবার বর্ষা প্রবেশ করে...

কানহাইয়া কুমারের উপর হামলা, ভিডিও প্রকাশ করে চাঞ্চল্যকর দাবি হামলাকারীর

নয়াদিল্লি: শুক্রবার উত্তর-পূর্ব দিল্লিতে নির্বাচনী প্রচারের সময় 'ইন্ডিয়া' জোট প্রার্থী কানহাইয়া কুমারের ওপর হামলা...

আইপিএল ২০২৪: প্লে-অফে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ, প্রথম চারে থাকার লড়াই এখন চেন্নাই আর বেঙ্গালুরুর মধ্যে

খবর অনলাইন ডেস্ক: বৃহস্পতিবার হায়দরাবাদে অবিরাম বৃষ্টি পড়ার ফলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ (এসআরএইচ) বনাম গুজরাত...

সন্দেশখালির মাম্পি দাসের জামিন মঞ্জুর, হাইকোর্টে ধাক্কা রাজ্য পুলিশের

কলকাতা: সন্দেশখালির বিজেপি নেত্রী মাম্পি দাসকে ব্যক্তিগত বন্ডে জামিন দিল কলকাতা হাইকোর্ট। শুক্রবার এই...

আরও পড়ুন

বর্ষাকে ভারতীয় ভূখণ্ডে নিয়ে আসার জন্য চলতি গরম খুব গুরুত্বপূর্ণ, সোমবার থেকে ফের ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা

শ্রয়ণ সেন বর্ষার দামামা বেজে গিয়েছে। দক্ষিণ আন্দামান সাগরে ১৯ মে, রবিবার বর্ষা প্রবেশ করে...

সন্দেশখালির মাম্পি দাসের জামিন মঞ্জুর, হাইকোর্টে ধাক্কা রাজ্য পুলিশের

কলকাতা: সন্দেশখালির বিজেপি নেত্রী মাম্পি দাসকে ব্যক্তিগত বন্ডে জামিন দিল কলকাতা হাইকোর্ট। শুক্রবার এই...

দক্ষিণ ও উত্তর কলকাতার বেশ কিছু অংশে শনিবার সন্ধে থেকে মদ বিক্রি বন্ধ

খবর অনলাইন ডেস্ক: শনিবার সন্ধে ৬টা থেকে দক্ষিণ ও উত্তর কলকাতার বেশ কিছু অংশে...