Homeখেলাধুলোশুটিংয়ে ভারতের আরেকটি পদক, এশিয়াডে রুপো জিতলেন অনন্তজিত সিং

শুটিংয়ে ভারতের আরেকটি পদক, এশিয়াডে রুপো জিতলেন অনন্তজিত সিং

প্রকাশিত

শুটিংয়ে আরও একটি পদক পেল ভারত। স্কিটে রৌপ্য পদক জিতেছেন অনন্তজিত সিং। সকাল থেকেই শুটিংয়ে ভারতের হয়ে পদকের বৃষ্টি হচ্ছে।

শুধু তাই নয়, স্কিট শুটিংয়ে ব্রোঞ্জ মেডেলও পেয়েছে ভারত। পুরুষদের দলগত ইভেন্টে এই পদক জিতেছে ভারত। অঙ্গদ বীর সিং বাজওয়া, অনন্তজিত সিং এবং গুরজোত সিংয়ের ভারতীয় দল এই পদক জিতে নেয়।

অন্য দিকে, ইতিহাস গড়েছেন ১৮ বছর বয়সী ইশা সিং। তিনি ২৫ মিটার এয়ার পিস্তল ইভেন্টে রুপো জিতে রেকর্ড গড়েছেন। এ দিন শুটিংয়ে ভারতের ঝুলিতে আসছে পদকের পর পদক। তবে মনু ভাকর এই ইভেন্টে পদক জিততে পারেননি।

এ ছাড়াও সেলিংয়ে ভারত এ দিন পদক পেয়েছে। পুরুষদের ইভেন্টে ব্রোঞ্জ পদক জিতেছেন বিষ্ণু সারাভানন। সবমিলিয়ে এখনও পর্যন্ত ভারতের পদক সংখ্যা দাঁড়াল ২২টি।

এশিয়ান গেমস ২০২৩-এ ভারতের পঞ্চম সোনা এসেছে এ দিনই। মহিলাদের ৫০ মিটার রাইফেল ৩ পজিশনসের ব্যক্তিগত প্রতিযোগিতায় সোনা জিতেছেন সিফট কউর সামরা।

এ দিন মহিলাদের ৫০ মিটার রাইফেল ৩ পজিশনের সিঙ্গলস ফাইনালে এসেছে জোড়া পদক। সোনা ও ব্রোঞ্জ এল ভারতের ঝুলিতে। সিফট কউর সামারা সোনা আর ব্রোঞ্জ জিতলেন আশি চোকসি। একটুর জন্য় রুপো হাতছাড়া হয় আশির। এর আগে মহিলাদের দলগত ৫০ মিটার রাইফেল ৩ পজিশনসে ভারতকে রুপো দিয়েছেন আশি ও সিফট।

প্রসঙ্গত, শিফট সামরা, আশি চোকসি, মানিন কৌশিক জুটি দিনের প্রথম পদক জেতেন। সেখান থেকে সিঙ্গলসের ফাইনালে প্রবেশ করেন শিফট সামারা ও আশি চোকসি। মানিন কৌশিক প্রবেশ করতে পারেননি। সিঙ্গলস ফাইনালে নেমে শুরু থেকেই দাপট দেখা যায় ভারতের।

আরও পড়ুন: এশিয়ান গেমস: শ্যুটিং-এ ২টো সোনা আনল ভারতের মেয়েরা

সাম্প্রতিকতম

বাম হাতে ভাই ফোঁটা দিয়ে ডান হাতে মুছে দিতেন, ছোটবেলার সেই প্রেমের গল্প বললেন ইন্দ্রানী হালদার

অভিনেত্রী একাধিক প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়েছেন। পেতেন প্রচুর প্রেমপত্রও। ছোটবেলায় বন্ধু-বান্ধবীদের দাদা-ভাইদের থেকেও নাকি প্রচুর প্রেমপত্র পেয়েছিলেন অভিনেত্রী।

অক্ষয় তৃতীয়ার আগে ১০ দিনে সোনার দাম কমল প্রায় ৩ হাজার টাকা

শেষ ১০ দিনে প্রতি ১০ গ্রাম সোনার দাম কমেছে ২,৯০০ টাকা। বর্তমানে সোনার দাম...

চাঁদিফাটা রোদে ত্বকের জেল্লা গায়েব, নিমেষে ফিরবে জেল্লা যদি করেন এই ৪ কাজ

এই দাবদহে বাড়ি থেকে বেরোতে হচ্ছে অনেককেই। আর তাতেই চেহারার হাল হচ্ছে যাতা। ঝলসে যাচ্ছে ত্বক।

সি বিচে প্লাষ্টিক কুড়াচ্ছেন মিমি চক্রবর্তী, দেখে হতবাক নেটবাসি, হঠাৎ কী হল অভিনেত্রীর?

এভাবেই একের পর এক আবর্জনা তুলে যাচ্ছেন সমুদ্রতট থেকে। এরপর জমা করছেন একটি বাস্কেটে। কিন্তু কেন এমন হাল অভিনেত্রীর? হঠাৎ আবর্জনা তুলছেন কেন?

আরও পড়ুন

মুম্বইকে হারিয়ে আইএসএল শিল্ড জয় মোহনবাগানের

কলকাতা: স্বপ্ন পূরণ হল মোহনবাগানের হাত ধরে। গতবার তারা জামশেদপুর এফসির কাছে হেরে লিগ...

ভারতীয় কুস্তি সংস্থার সদ্য নির্বাচিত কমিটি সাসপেন্ড, বড়ো পদক্ষেপ ক্রীড়ামন্ত্রকের

নয়াদিল্লি: বৃহস্পতিবার ভারতীয় কুস্তি সংস্থার (WFI) নতুন কমিটি তৈরি হয়েছিল। তবে, ক'দিনের ব্যবধানেই সেই...

এসো হাঁটি বাঁচার আনন্দে: গার্ডেনরিচ ফুটবল কোচিং সেন্টারের অভিনব কর্মসূচি

প্রভাত ঘোষ শীতের গড়িয়ে যাওয়া বিকেল। ঘড়ির কাঁটায় ঠিক সোয়া তিনটে। শুরু হল গার্ডেনরিচ ফুটবল...