Homeখেলাধুলোক্রিকেটবিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০২৩: বিধ্বংসী শামি, পাশে সিরাজ, শ্রীলঙ্কাকে গুঁড়িয়ে প্রথম দল হিসাবে...

বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০২৩: বিধ্বংসী শামি, পাশে সিরাজ, শ্রীলঙ্কাকে গুঁড়িয়ে প্রথম দল হিসাবে ভারত সেমিফাইনালে

প্রকাশিত

ভারত: ৩৫৭-৮ (শুভমন গিল ৯২, বিরাট কোহলি ৮৮, শ্রেয়স আইয়ার ৮২, দিলশান মদুশঙ্কা ৫-৮০)

শ্রীলঙ্কা: ৫৫ (১৯.৪ ওভার) (কসুন রজিথা ১৪, মোহম্মদ শামি ৫-১৮, মোহম্মদ সিরাজ ৩-১৬)

মুম্বই: মোহম্মদ শামি এবং মোহম্মদ সিরাজের বিধ্বংসী বোলিং-এর কাছে কার্যত আত্মসমর্পণ করল শ্রীলঙ্কা। জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ৩৫৮ রানের লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে গিয়ে তারা গুটিয়ে গেল মাত্র ৫৫ রানে। সেই ৫৫ রান এল ১৯.৪ ওভারে অর্থাৎ গড়ে ওভারপিছু রান ২.৭৯ – ৩-এরও কম। এই পরিসংখ্যানই বলে দিচ্ছে কতটা অসহায় ছিলেন শ্রীলঙ্কার ব্যাটাররা শামি আর সিরাজের বোলিং-এর সামনে। টানা ৭টি ম্যাচ জিতে এ বারের বিশ্বকাপে প্রথম দল হিসাবে সেমিফাইনালে চলে গেল ভারত। এ দিন ‘প্লেয়ার অফ দ্য ম্যাচ’ হলেন শামি।    

বৃহস্পতিবার মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে আয়োজিত ম্যাচে শ্রীলঙ্কা টসে জিতে ভারতকে ব্যাট করতে পাঠায়। ৫০ ওভারে ভারত করে ৮ উইকেটে ৩৫৭ রান। ভারতের তিন জন ব্যাটার সেঞ্চুরির মুখ থেকে ফিরে আসেন। শুভমন গিল শতরান মিস করেন মাত্র ৮ রানে। বিরাট কোহলি আর শ্রেয়স আইয়ার শতরান থেকে ১২ আর ১৮ রান দূরে থাকলেন।

শ্রীলঙ্কার ৫ ব্যাটার ফিরে গেলেন ০ রানে  

জয়ের জন্য ৩৫৮ রানের লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে গিয়ে মাত্র ১৯.৪ ওভারে গুটিয়ে গেল শ্রীলঙ্কা। করল মাত্র ৫৫ রান। দুই অঙ্কের রানে পৌঁছোলেন মাত্র ৩ জন। সর্বোচ্চ রান মাত্র ১৪। করলেন কসুন রজিথা। পাঁচ জন ব্যাটার রানের খাতাই খুলতে পারলেন না। ভারত জিতে গেল ৩০২ রানে।

শ্রীলঙ্কাকে ধ্বংসের কাজ প্রথম শুরু করেন জসপ্রীত বুমরাহ। ইনিংসের প্রথম বলেই বুমরাহ এলবিডব্লিউ আউট করলেন পথুম নিসঙ্ককে। তখনও কোনো খাতা খোলার প্রশ্নই নেই। এর পর ময়দানে নামলেন মোহম্মদ সিরাজ। পর পর তুলে নিলেন দিমুথ করুণারত্নে, অধিনায়ক কুশল মেন্ডিস এবং সদিরা সমরবিক্রমকে। করুণারত্নে রানের খাতা খোলার আগেই এলবিডব্লিউ, মেন্ডিস ১ রান করে বোল্ড এবং সমরবিক্রম সেই শূন্য রানেই শ্রেয়স আইয়ারকে ক্যাচ। উইকেট পড়ল দলের ২,২ এবং ৩ রানে।

৩ রানে ৪ উইকেট। প্যাভিলিয়নে যাওয়ার মিছিল লেগে গিয়েছে শ্রীলঙ্কার ব্যাটারদের মধ্যে। এর পর সামান্য বিরতি। পঞ্চম উইকেট যোগ হল ১১ রান। সিরাজের পর উইকেট তুলে নেওয়ার কাজ শুরু করে দিলেন শামি। একে একে উইকেট পড়ল ১৪, ১৪, ২২ এবং ২৯ রানে। শামি তুলে নিলেন চরিত অসলঙ্কা, দুসন হেমন্ত, দুষ্মন্ত চমিরা এবং অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসকে। এঁদের মধ্যে দুসন আর দুষ্মন্ত শূন্য হাতে প্যাভিলিয়নে ফেরত গেলেন। দু’ জনেই উইকেটকিপার কে এল রাহুলকে ক্যাচ দিলেন। চরিত ১ রান করে শামির বলে রবীন্দ্র জাদেজাকে ক্যাচ দিয়ে আউট হন এবং ম্যাথিউস ১২ রানে বোল্ড হন।

শ্রীলঙ্কার ইনিংসে সবচেয়ে বড়ো পার্টনারশিপ হল নবম উইকেটে। কসুন রজিথা আর মহিশ থিকসানা যোগ করেন ২০ রান। দলের ৪৯ রানের মাথায় রজিথাকে তুলে নেন শামি। তিনি শুভমন গিলকে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন। রজিথা হলেন শামির পঞ্চম শিকার। এর পর দিলশান মদুশঙ্কাকে নিয়ে মহিশ থিকসানা শেষ উইকেটে যোগ করেন ৬ রান। দলের ৫৫ রানে রবীন্দ্র জাদেজা মদুশঙ্কাকে তুলে নিতেই শ্রীলঙ্কা আত্মসমর্পণ করে ভারতের কাছে।

সেঞ্চুরির দরজা থেকে ফিরলেন শুভমন, কোহলি, শ্রেয়স  

এর আগে ভারত ৫০ ওভারে করে ৮ উইকেটে ৩৫৭ রান। দিলশান মদুশঙ্কা ৮০ রান দিয়ে ৫ উইকেট নিলেও শ্রীলঙ্কার আর কোনো বোলার ভারতীয় ব্যাটারদের উপর কোনো প্রভাব বিস্তার করতে পারেনি। ইনিংসের শুরুতেই অবশ্য বিদায় নেন অধিনায়ক রোহিত শর্মা। দ্বিতীয় বলে ৪ রান করে প্যাভিলিয়নে চলে যান তিনি। মদুশঙ্কা তাঁকে বোল্ড করেন।

এর পরই শুরু হয় ভারতের আক্রমণ। শ্রীলঙ্কার বোলিংকে পাত্তা না দিয়ে দ্বিতীয় উইকেটের জুটিতে শুভমন গিল এবং বিরাট কোহলি যোগ করেন ১৮৯ রান। পর পর আউট হয়ে যান শুভমন আর কোহলি। দু’ জনেই শতরানের দোরগোড়া থেকে ফিরে আসেন। শুভমন করেন ৯২ বলে ৯২। আর বিরাট করেন ৯৪ বলে ৮৮ রান। মদুশঙ্কার বলে দু’জনেই কার্যত উইকেটে ছুড়ে দিয়ে আসেন।

এর পর পার্টনারশিপ গড়েন শ্রেয়স আইয়ার এবং কে এল রাহুল। চতুর্থ উইকেটের জুটিতে তাঁরা যোগ করেন ৬০ রান। দলের ২৫৬ রানের মাথায় চামিরার বলে হেমন্তকে ক্যাচ দিয়ে আউট হন রাহুল। সূর্যকুমার যাদব, রবীন্দ্র জাদেজার সঙ্গে জুটি বেঁধে শ্রেয়স দলের রান এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন। প্রচণ্ড মারমুখী ছিলেন শ্রেয়স। তিনিও শতরান করার আশা জাগিয়েছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ৫৬ বলে ৮২ রান করে মদুশঙ্কার শিকার হন। দলের রান তখন ৩৩৩। ইতিমধ্যে আউট হয়ে গিয়েছেন সূর্যকুমার। ভারতের শেষ দুটি উইকেট রান আউট। জাদেজা ৩৫ রানে এবং শামি ২ রানে। ভারত ইনিংস শেষ করে ৩৫৭ রানে।

বিশ্বকাপ থেকে কার্যত বিদায় শ্রীলঙ্কার

এ দিনের জয়ের পর ৭ ম্যাচের মধ্যে ৭টিতে জিতে ভারত সংগ্রহ করল ১৪ পয়েন্ট এবং এ বারের বিশ্বকাপে প্রথম দল হিসাবে তারা সেমিফাইনালে যাওয়া নিশ্চিত করল। আর শ্রীলঙ্কা ৭ ম্যাচ থেকে ৪ পয়েন্ট সংগ্রহ করে এ বারের বিশ্বকাপে বিদায় নেওয়ার পথ পাকাপাকি করল।

আরও পড়ুন

বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০২৩: ডি কক এবং ডুসেনের সেঞ্চুরি, কেশবের চার শিকার, দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ধরাশায়ী নিউজিল্যান্ড

সাম্প্রতিকতম

তিরন্দাজি বিশ্বকাপ স্টেজ টু: ভারতীয় ত্রয়ী জ্যোতি-পরণীত-অদিতির সোনা জয়

খবর অনলাইন ডেস্ক: তিরন্দাজি বিশ্বকাপে সোনা জয়ের হ্যাটট্রিক। পরপর তিনবার সোনা জিতলেন ভারতীয় ত্রয়ী...

সাজছে ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’, সাগরদ্বীপ থেকে ৩৮০ কিমি দূরে, অভিঘাত সহ্য করতে হবে সুন্দরবনকে   

শ্রয়ণ সেন উপকূল থেকে ক্রমশ দূরত্ব কমছে ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’-এর। শনিবার দুপুর ১২টা নাগাদ এটি অতি...

চলছে ষষ্ঠ দফার ভোটগ্রহণ পর্ব, নজর কোন কোন প্রার্থীর দিকে

খবর অনলাইন ডেস্ক: শনিবার লোকসভা নির্বাচনের ষষ্ঠ দফার ভোটগ্রহণ পর্ব চলছে। ৬টি রাজ্য ও...

‘৪০০-র অঙ্ক ছাড়ুন…’, ফলাফলের আগে যোগেন্দ্র যাদবের ভবিষ্যদ্বাণী, চাপ বাড়বে বিজেপির!

নয়াদিল্লি: শনিবার চলছে ষষ্ঠ দফার ভোটগ্রহণ। বাকি এখনও এক দফা। তার আগেই বড়সড় ভবিষ্যদ্বাণী...

আরও পড়ুন

আইপিএল ২০২৪: রাজস্থান রয়্যালস্‌কে ৩৬ রানে হারিয়ে ফাইনালে কলকাতার মুখোমুখি হায়দরাবাদ

সানরাইজার্স হায়দরাবাদ: ১৭৫-৯ (হাইনরিখ ক্লাসেন ৫০, রাহুল ত্রিপাঠী ৩৭, অবেশ খান ৩-২৭, ট্রেন্ট বোল্ট...

আইপিএল ২০২৪: বেঙ্গালুরুকে হারিয়ে হায়দরাবাদের মুখোমুখি রাজস্থান রয়্যালস্‌

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু: ১৭২-৮ (রজত পতিদার ৩৪, বিরাট কোহলি ৩৩, অবেশ খান ৩-৪৪, রবিচন্দ্রন...

আইপিএল ২০২৪: ফাইনালে কেকেআর, এখনও একটা সুযোগ থাকল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ-এর

সানরাইজার্স হায়দরাবাদ: ১৫৯ (১৯.৩ ওভারে) (রাহুল ত্রিপাঠী ৫৫, হাইনরিখ ক্লাসেন ৩২, মিশেল স্টার্ক ৩-৩৪,...