Homeরাজ্যউঃ ২৪ পরগনাএগরা থেকে দত্তপুকুর বিস্ফোরণ, বাজি ক্লাস্টারেই কি মিটবে সমস্যা?

এগরা থেকে দত্তপুকুর বিস্ফোরণ, বাজি ক্লাস্টারেই কি মিটবে সমস্যা?

প্রকাশিত

পূর্ব মেদিনীপুরের এগরায় বাজি কারখানা বিস্ফোরণের পর খাদিকূল গ্রামে গিয়ে বাজি ক্লাস্টার তৈরির ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার পর কেটেছে বেশ কয়েকমাস। ফের দত্তপুকুরে বেআইনি বাজি কারখানায় বিস্ফোরণের পর ক্লাস্টার তৈরির প্রসঙ্গে উঠছে।

এগার পর এই কয়েক মাস শুধু জমি চিহ্নিত করা গিয়েছে। তবে সেখানে হবে কি না তাও এখনও চূড়ান্ত নয়। বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন মুখ্যমন্ত্রীও। সোমবার তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সভা থেকে ফের সবুজ বাজি তৈরির পক্ষে সওয়াল করেন।

সোমবার ছিল রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠক। সেই বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষোভের মুখে পড়েন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী। এগরায় বিস্ফোরণের পর মুখ্যসচিবের সঙ্গে বৈঠক করে ছ’দফা নির্দেশ দেন তিনি। কিন্তু তার চারমাসের মধ্যেই ফের এই বিস্ফোরণে ক্ষুব্ধ মমতা।

কোথায় ক্লাস্টারের জন্য জমি চিহ্নিত হয়েছে?

প্রাথমিক ভাবে, ক্লাস্টার তৈরির জন্য পূর্ব মেদিনীপুর জেলা প্রশাসনের তরফে দুটো জায়গাকে চিহ্নিত করা হয়। একটি হল মহিষাদলের কেশবপুর-জালপাইতে। অন্যটি, কোলাঘাটের রূপনারায়ণের তীরবর্তী এলাকায়। কিন্তু জমি চিহ্নিত করা হলেও এখনও কোন সিদ্ধান্ত হয়নি ঠিক কোথায় ক্লাস্টারটি হবে।

বন্ধ বেআইনি বাজি কারখানায় ফের উৎপাদন

এক বার বন্ধ করে দেওয়া বেআইনি বাজি কারখানায় যাতে আবার উৎপাদন শুরু না হয় তা দেখতে স্থানীয় থানাকে নির্দেশ দেয় নবান্ন। এগরায় মূল অভিযুক্ত ভানু তিনি অতীতেও বাজি কারখানা চালাতেন। পুলিশ গ্রেফতার করলেও মুক্তি পেয়েই আবার তিনি বাজির কারবার শুরু করে দেন।

দত্তপুকুরের ঘটনাতেও দেখা যায় কারখানার মালিক কেরামত আলি অতীতে গ্রেফতার হলেও মুক্তি পাওয়ার পরে আবার বাজি তৈরি শুরু করেন। গত ১৮ মে জেলায় জেলায় নবান্নের তরফে নির্দেশ পাঠানো হলেও কাজের কাজ যে বিশেষ হয়নি। তা দত্তপুকুরের ঘটনাতেই স্পষ্ট।

পড়ুন: পঞ্চায়েত মামলার নিষ্পত্তিতে সব সিসিটিভি ফুটেজ দেখবেন বিচারপতি অমৃতা সিনহা

বাজি কারখানা না বোমার গবেষণাগার?

এবিপি আনন্দের প্রতিবেদনে উঠে এসেছে, দত্তপুকুরের মোচপোলে যেখানে ভয়াবহ বিস্ফোরণ হয় তার থেকে মাত্র ৬৫০ মিটার দূরে বেরো নারায়ণপুরে রয়েছে একটি পরিত্য়ক্ত ইটভাটা। রাস্তার উপরেই প্রায় ১০ বিঘা জমি জুড়ে এই ইট ভাটাটি। এই ভাটার ভেতর পাওয়া গিয়েছে অত্য়াধুনিক মেশিন, প্রচুর পরিমানে সলিড ও লিক্য়ুইড রাসায়নিক। ইটভাটার আড়ালে গবেষণাগার। এতে রয়েছে টেস্টটিউব, কনিক্যাল ফ্লাস্ক, গ্লাভস, হেলমেট। কী হতো এই ইটভাটা তা নিয়ে পরতে পরতে রহস্য।

brick
সেইপরিত্য়ক্ত ইটভাটা

লকডাউন থেকেই রমরমা

দত্তপুকুররের এলাকাবাসীরা জানাচ্ছেন লকডাউন-পর্বেই বেআইনি বাজি কারখানার রমরমা। সে সময় অনেকের বাড়িতে হাঁড়ি চড়ছিল না। দিনে দু’তিনশো টাকাও তখন অনেক পরিবারের কাছে অনেক। গ্রামবাসীরা অনেকে জানিয়েছেন আজিবর রহমান, কেরামত আলিরা টোপ দেন সে সময় টোপ দেন, এক হাজার বাজিতে আঠা ও প্লাস্টিকের মোড়ক লাগালে মিলবে ১১০ টাকা।

বাড়ির সকলে মিলে এই কাজে সাহায্য করতে পারে। কারবারিরাই বাজি দিয়ে যেতে এবং বাড়ি থেকে নিয়ে যেত। তাই সহজে আয়ের এই রাস্তা ধরেন অনেকেই। রাতারাতি ফুলেফেঁপে ওঠে বাজির কারবার। এই কাজের সঙ্গে যুক্ত এক মহিলা জানিয়েছেন, ‘কাজটা বিপজ্জনক জেনেও সে সময়ে টাকার জন্য হাত লাগিয়েছিলাম।’ বাজি ক্লাস্টারেই কি সমস্যার সমাধান হবে? প্রশ্নটা থেকেই যাচ্ছে।

সাম্প্রতিকতম

NEET-UG 2024: প্রশ্নপত্র ফাঁসের অন্যতম পাণ্ডা এবং দুই ‘সল্ভার’ এমবিবিএস ছাত্রকে গ্রেফতার করল সিবিআই

খবর অনলাইন ডেস্ক: ডাক্তারি প্রবেশিকা পরীক্ষা নিট-ইউজি (NEET-UG 2024) প্রশ্নপত্র ফাঁসের অন্যতম পাণ্ডা এবং দুই...

তৃণমূলের শহিদ দিবসে কলকাতার একাধিক রাস্তায় যান নিয়ন্ত্রণ, পথে বেরোতে হলে জেনে নিন বিস্তারিত

তৃণমূলের শহিদ দিবস উপলক্ষে কলকাতার বিভিন্ন রাস্তায় যানজটের আশঙ্কা রয়েছে। কলকাতা পুলিশ আগেভাগেই বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছে। রবিবার ধর্মতলা ও আশপাশের এলাকায় যান নিয়ন্ত্রণ থাকবে।

কারফিউতেও জারি মৃত্যু, ঢাকায় অন্তত ৭ জন নিহত

ঢাকা, বাংলাদেশ: কারফিউ সত্ত্বেও ঢাকায় হিংসার ঘটনা ঘটেছে, যার ফলে অন্তত ৭ জন নিহত হয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে শহরের বিভিন্ন স্থানে উত্তেজনা বিরাজ করছে এবং নিরাপত্তা বাহিনী কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করছে।

দীর্ঘ সময় ধরে বসে বসে একটানা কাজ, পিঠের ব্যথায় কাতর? কী খাবেন, কী বলছে গবেষণা

আজকাল বেশির ভাগ মানুষ একটানা বসে বসে এসির ঠান্ডা ঘরে কাজ করে। কাজের ব্যস্ততা...

আরও পড়ুন

দলেরই প্রভাবশালী লোকের জামিনের ব্যবস্থা করে দিতে হুমকি-ফোন সৌগত রায়কে  

কলকাতা: ফোনে খুনের হুমকি পেলেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। দলেরই প্রভাবশালী সদস্য ধৃত জয়ন্ত...

পিছিয়ে নেই ওরাও, রক্তদান শিবিরে এসে রক্ত দিলেন চার দৃষ্টিহীন যুবক 

রক্তদান শিবিরে এসে রক্ত দিলেন চার দৃষ্টিহীন যুবক। রবিবার বনহুগলী যুবক সংঘের ১৪তম রক্তদান উৎসবের সূচনা হয়। সূচনা লগ্নেই তাঁরা এগিয়ে এসে রক্তদান করেন।

ছোঁয়াচে হয়েছে গণপিটুনি, বৌবাজারের পর এবার সল্টলেকে মোবাইল চোর সন্দেহে পিটিয়ে খুন, ধৃত ৩

শনিবার সকালে প্রসেন মণ্ডলকে গুরুতর জখম অবস্থায় সল্টলেকের করুণাময়ী এলাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।
বাড়তি মেদ ঝরানোর নয়া ট্রেন্ড ‘ওয়াটার ফাস্টিং’ কী? মানসিক স্বাস্থ্য ভাল রাখার ৮ টি অভ্যাস